পশ্চিমবঙ্গের সাবেক বন কর্মকর্তা রবিকান্ত সিনহা বলেছেন, এ অভয়ারণ্যে বাঘের অস্তিত্ব আগে থাকলেও সাম্প্রতিককালে তার অস্তিত্ব ধরা পড়েনি। অবশেষে ২৩ বছর পর ১১ ডিসেম্বর ধরা পড়েছে বাঘের অস্তিত্ব। ১১ ডিসেম্বর এ অভয়ারণ্যে লাগানো ট্র্যাপ ক্যামেরায় বেঙ্গল টাইগারের ছবি মেলায় নতুন করে শুরু হয়েছে এ অভয়ারণ্যে বাঘের অস্তিত্ব নিয়ে জল্পনাকল্পনা।

পশ্চিমবঙ্গের আলিপুরদুয়ারের বন্য প্রাণীপ্রেমী ল্যারি বোস বলেছেন, ট্র্যাপ ক্যামেরায় ধরা বক্সার অভয়ারণ্যের বাঘটি সম্ভবত বক্সাবের পাশের ভুটান সীমান্তের জঙ্গল থেকেও আসতে পারে। বিষয়টি নিয়ে বন দপ্তর তদন্তও শুরু করেছে। তিনি আরও বলেন, বক্সার অভয়ারণ্যে বাঘের অস্তিত্ব থাকলে এত দিনে তার প্রমাণ মিলত যেভাবেই হোক।

এদিকে বক্সারের ট্র্যাপ ক্যামেরায় ধরা পড়া ওই বাঘ আদৌ পশ্চিমবঙ্গের নাকি ভুটান জঙ্গল থেকে এসেছে, তা নিয়ে জোর বিতর্ক শুরু হয়েছে। এলাকাবাসী মনে করছেন, এমনও হতে পারে যে বাঘটি সত্যিই ভুটান জঙ্গল থেকে এসেছে। তাই তো রাজ্যের বাঘপ্রেমীরা প্রশ্ন তুলেছেন, বাঘটি কোন দেশের—ভারতের না ভুটানের, নাকি ভারতে অনুপ্রবেশকারী?

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন