বিজ্ঞাপন

হোয়াইট ফাঙ্গাসের সংক্রমণ ছড়াচ্ছে বিহার রাজ্যে। বিহারের রাজধানী পাটনায় এই ফাঙ্গাসের প্রথম সংক্রমণ শনাক্ত হয়। সাম্প্রতিক তথ্য অনুসারে, সেখানে হোয়াইট ফাঙ্গাসে সংক্রমিত পাঁচ রোগীকে শনাক্ত করা হয়েছে।
বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, তবে এই ফাঙ্গাসে সংক্রমণ ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের তুলনায় বেশি বিপজ্জনক। ক্যানডিডা ফাঙ্গাসের কারণে এই সংক্রমণ হয়।

এই ফাঙ্গাসের সংক্রমণ প্রসঙ্গে ভারতের হরিয়ানার পারাস হাসপাতালের রেসপিরেটরি মেডিসিন বিভাগের প্রধান অরুনেশ কুমার ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে বলেন, ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের তুলনায় হোয়াইট ফাঙ্গাস বেশি বিপজ্জনক। শরীরে রোগ প্রতিরোধক্ষমতা কম হলে এই ফাঙ্গাসের সংক্রমণ হয়। স্যাঁতসেঁতে পরিবেশে থাকলে এতে সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি থাকে। ফলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা গুরুত্বপূর্ণ।

অরুনেশ কুমার বলেন, এই ফাঙ্গাসে সংক্রমিত রোগীর কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর মতোই উপসর্গ দেখা দেয়। তবে কোভিড পরীক্ষায় এমন রোগীর ‘নেগেটিভ’ আসে। এক্স-রে কিংবা সিটি স্ক্যানের মাধ্যমে এই সংক্রমণ নিশ্চিত হওয়া যেতে পারে। তিনি বলেন, হোয়াইট ফাঙ্গাস শুধু ফুসফুসকে ভোগায় না। নখ, চামড়া, পাকস্থলী, কিডনি, মস্তিষ্ক, গোপনাঙ্গ, মুখসহ শরীরের বিভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গ এই ফাঙ্গাসের আক্রমণে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। করোনায় আক্রান্ত রোগীদের এই ফাঙ্গাসে সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি বেশি।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন