default-image

পশ্চিমবঙ্গে এখন চলছে নির্বাচনী মৌসুম। এরই মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সংক্রমণ শনাক্তে রেকর্ড হয়েছে। তাই এই করোনার আবহে নির্বাচন নিয়ে আগামীকাল শুক্রবার এক সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছে রাজ্য নির্বাচন কমিশন। অন্যদিকে বাম দল সিপিএম চাইছে, করোনা নিয়ন্ত্রণে রাখতে অবিলম্বে বড় সভার ওপর রাশ টানতে।

গতকাল বুধবার রাতে রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে সর্বশেষ মেডিকেল বুলেটিনে জানানো হয়েছে, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় এই রাজ্যে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৫ হাজার ৮৯২ জন। আর মারা গেছেন ২৪ জন। করোনার এই সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়ে যাওয়ায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে কলকাতাসহ পুরো রাজ্যে। প্রশ্ন উঠেছে, তবে কি নির্বাচন কমিশন এই করোনা আবহের মধ্যে নির্বাচন চালিয়ে যাবে? নাকি নির্বাচনের তফসিল পুনর্বিবেচনা করবে? এই লক্ষ্যে কাল শুক্রবার রাজ্য নির্বাচন কমিশন তাদের কলকাতার নির্বাচন দপ্তরে এক সর্বদলীয় বৈঠক ডেকেছে। বেলা ২টায় এই বৈঠক হওয়ার কথা। বৈঠকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে রাজ্যের ১০টি রাজনৈতিক দলকে। বলা হয়েছে, প্রতিটি দলের একজন করে প্রতিনিধি ওই বৈঠকে যোগ দেবেন।

রাজ্যজুড়ে করোনা ভয়াবহ রূপ নেওয়ায় সিপিএম চাইছে নির্বাচনী প্রচারের বড় বড় কর্মসূচিতে রাশ টানতে। চাইছে ছোটখাটো বৈঠক ও সভা সমিতির মাধ্যমে ভোটের প্রচার চালাতে। গতকাল বুধবার সিপিএমের রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়। বৈঠকের পর এ কথা জানান সিপিএম পলিটব্যুরোর সদস্য মহম্মদ সেলিম এবং রাজ্য বিধানসভা সিপিএমের সাবেক নেতা সুজন চক্রবর্তী। বিধানসভার চার দফার নির্বাচনে ইতিমধ্যে ১৩২ আসনের ভোট নেওয়া হয়েছে। আর এখন পরবর্তী ৪ দফার নির্বাচনে ভোট গ্রহণ বাকি রয়েছে ১৬২টি আসনে। বিধানসভার মোট আসন ২৯৪।

এদিকে এখন এই  রাজ্যে দুই সপ্তাহ ধরে দ্রুত বাড়ছে করোনা। বিশেষ করে করোনার আবহে নির্বাচনী প্রচার বিভিন্ন রাজনৈতিক দল চালিয়ে যাওয়ায় প্রতিদিনই হাজারো মানুষের ভিড় জমছে বিভিন্ন রাজনৈতিক সভা, সমাবেশ এবং রোড শোতে। আর এসব ভিড়ে দ্রুত করোনা বাড়ছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন