কলকাতার সভায় ভাগবত বলেন, ‘আমরা নেতাজিকে স্মরণ করি শুধু এই জন্য নয় যে স্বাধীনতা সংগ্রামে তাঁর মূল্যবান অবদানের জন্য তাঁর কাছে আমরা কৃতজ্ঞ। আমরা তাঁর গুণ আত্মস্থ করার জন্যও তাঁকে স্মরণ করি। তিনি যে ভারত গড়তে চেয়েছিলেন সে স্বপ্ন আজও পূর্ণ হয়নি। সেই ভারত গড়ার জন্য কাজ করে যেতে হবে।’ পরিস্থিতি এবং পথ ভিন্ন হলেও, তাদের গন্তব্য একই বলেও ভাগবত মন্তব্য করেন।

মোহন ভাগবত বলেন, ‘সুভাষচন্দ্র বসু প্রথমে কংগ্রেসের সাথে যুক্ত ছিলেন। পরে সত্যাগ্রহের পথে আন্দোলন করেছিলেন। কিন্তু যখন তিনি বুঝতে পারলেন যে এটি যথেষ্ট নয়, তখন তিনি সরাসরি স্বাধীনতার সংগ্রাম শুরু করলেন। আমাদের পথ ভিন্ন ভিন্ন কিন্তু লক্ষ্য একই।’

আরএসএস প্রধান ভাগবত বলেন, ‘অনুসরণ করার জন্য আমাদের সামনে তাঁর আদর্শ রয়েছে। তাঁর যে লক্ষ্য ছিল তা আমাদেরও সেটাই লক্ষ্য...নেতাজি বলেছিলেন ভারত বিশ্বের একটি ছোট সংস্করণ এবং ভারতকেই বিশ্বকে পথ দেখাতে হবে। আমাদের সকলকে সেই লক্ষ্যেই কাজ করতে হবে।’