আজ বৃহস্পতিবার পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য বিধানসভার শীতকালীন অধিবেশনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, এখন থেকে বাংলাদেশের ইলিশের ওপর পশ্চিমবঙ্গের নির্ভরতা কমাতে হবে। সেই সঙ্গে নদী ও সমুদ্র থেকে ইলিশ পোনা বা ছোট ইলিশ ধরা বন্ধ করতে হবে। একই সঙ্গে ইলিশের উৎপাদন বাড়ানোর উদ্যোগ নিতে হবে।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘আমাদের সমুদ্র ও উপকূলীয় নদী এলাকায় ইলিশের বংশবৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হবে। শুধু ইলিশ নয়, আমাদের নদী ও জলাশয়ে অন্যান্য মাছের উৎপাদন বাড়াতে হবে। মাছের চাষ বাড়াতে হবে। এ জন্য মমতা আজ এই মাছের জন্য বিভিন্ন জলাশয় মাছ চাষের জন্য রাজ্যের স্বনির্ভর গোষ্ঠী ও বিভিন্ন ক্লাবের হাতে তুলে দেওয়ার নির্দেশ দেন। এতে এই রাজ্যে মাছের উৎপাদন বাড়বে, সেই সঙ্গে বহু মানুষের কর্মসংস্থান হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী।’ তিনি বলেন, এতে মাছের দাম কমবে।

মমতা আরও বলেছেন, ‘আমরা ডায়মন্ড হারবারে ইলিশ নিয়ে একটি গবেষণাকেন্দ্র তৈরি করেছি। সেখানে এই রাজ্যে আরও বেশি করে ইলিশ উৎপাদন নিয়ে গবেষণা করা হচ্ছে। এই গবেষণাকেন্দ্রে প্রতিনিয়ত ইলিশের গতিবিধি নিয়ে গবেষণা হচ্ছে। তাই ভবিষ্যতে যাতে এই রাজ্যে প্রচুর ইলিশ উৎপাদিত হয়, সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাওয়া হচ্ছে।’

মমতা বলেছেন, ‘আমরা এই রাজ্যে ইলিশের পোনা বা ছোট ইলিশ ধরা বন্ধ করে দিয়েছি। আমরা চাইছি আমাদের ছোট ইলিশ ধরা বন্ধের অভিযানে আমাদের মৎস্যজীবীরা এক হোক। তারা সচেতন হলে আর এই রাজ্যে ছোট ইলিশ ধরা বন্ধ হবে। ইলিশের বংশবৃদ্ধি হবে। ইলিশের উৎপাদন বাড়বে। ইলিশের মূল্য কমবে। আমাদের আর ওপারের ইলিশের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে না। আমাদের রাজ্যেও ইলিশ উৎপাদন বাড়বে।’