করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে ভারতে আসা যাত্রীদের এ–সংক্রান্ত ফরম পূরণ এত দিন বাধ্যতামূলক ছিল। ভারতে আসার আগে ‘এয়ার–সুবিধা’ পোর্টালে অনলাইন ফরম পূরণ করে নিবন্ধন নম্বর নিতে হতো। ফরমে লিখতে হতো, করোনার টিকা কবে নেওয়া হয়েছে, কোন টিকা নেওয়া হয়েছে, কয়টি ডোজ টিকা নেওয়া হয়েছে ইত্যাদি। সরকারি ওই নিয়ম না মানলে ভারতগামী ফ্লাইটে ওঠার ছাড়পত্র মিলত না। গত সোমবার রাত ১২টার পর থেকে সেই নিয়ম প্রত্যাহার করে নেওয়া হলো।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ওই সিদ্ধান্তের পাশাপাশি বলেছে, প্রয়োজনে আবার ওই বাধ্যবাধকতা ফিরিয়ে আনা হতে পারে। প্রতিষেধকসংক্রান্ত ফরম ভর্তি আপাতত বাতিল হলেও সরকার মনে করে, সাবধানতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে যাত্রীদের স্বার্থে ফ্লাইটে এবং বিমানবন্দরে মাস্ক পরা ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা উচিত।

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার যে সময় বিদেশি যাত্রীদের জন্য জারি থাকা এ বাধ্যবাধকতা প্রত্যাহার করে নিল, পর্যটকদের কাছে সেই সময়টা ভারত সফরের জন্য আদর্শ।

সরকারের ধারণা, এ সিদ্ধান্তের ফলে এবারের মৌসুমে ভারতে আন্তর্জাতিক পর্যটকের সংখ্যা বাড়বে। দেশের অর্থনীতির পক্ষে সেটা হবে মঙ্গলজনক।

ভারতে এখন করোনার সংক্রমণ অনেক কমে গেছে। মঙ্গলবার সকালের সরকারি হিসাব অনুযায়ী ভারতে এখন সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ৬ হাজার ৪০২। এদিকে করোনা থেকে সেরে ওঠার হার বেড়ে হয়েছে ৯৮ দশমিক ৮।