গতকাল মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার ঘোষণা দিয়েছেন, বজ্রপাতে যাঁরা মারা গেছেন, ক্ষতিপূরণ হিসেবে তাঁদের প্রত্যেকের পরিবারকে চার লাখ করে রুপি দেওয়া হবে।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মুখ্যমন্ত্রী নঅীতীশ কুমার বিষয়টি নিয়ে গত সপ্তাহে রাজ্যের কর্মকর্তাদের নিয়ে একটি বৈঠক করেছেন। বৈঠক থেকে তিনি কর্মকর্তাদের স্কুল, হাসপাতালসহ সব সরকারি ভবনে বজ্রপাত–নিরোধক স্থাপনের বসানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

ভারতীয় এই দৈনিকের প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, ভৌগোলিক অবস্থানগত কারণে বর্ষা মৌসুমে বিহার রাজ্যে প্রায়ই এমন প্রাণঘাতী বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে।

এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে প্রকাশিত বিবিসির এক প্রতিবেদন বলা হয়েছিল সাম্প্রতিক বছরগুলোয় ভারতে বজ্রপাতের ঘটনা আগের তুলনায় অনেকটা বেড়ে গেছে।

ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল মেটেরোলজির সংগ্রহ করা উপগ্রহ চিত্রে দেখা যায়, ১৯৯৫ থেকে ২০১৪ সালে ভারতে বজ্রপাতের ঘটনা বেশ দ্রুত বেড়েছে।

২০২০ সালের এপ্রিল থেকে ২০২১ সালের মার্চ পর্যন্ত ভারতে ১ কোটি ৮০ লাখের বেশি বজ্রপাত হয়েছে। ভারতে বজ্রপাতের এ সংখ্যা এর আগের এক বছর সময়ের চেয়ে ৩৪ শতাংশ বেশি। এই হিসাব দিয়েছে অলাভজনক সংগঠন ক্লাইমেট রেজিলিয়েন্ট অবজারভিং সিস্টেমস প্রমোশন কাউন্সিল।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন