এনএনআইয়ের প্রতিবেদন অনুযায়ী কেরালার স্বাস্থ্যমন্ত্রী বীণা জর্জ জানিয়েছেন, ভারতে নয়, অন্য একটি দেশে ওই তরুণের মাঙ্কিপক্স সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল।

সূত্রের বরাত দিয়ে ভারতীয় বিভিন্ন গণমাধ্যম জানিয়েছে, সংযুক্ত আরব আমিরাতে মাঙ্কিপক্স শনাক্ত হয় ওই তরুণের। গত ২২ জুলাই তিনি ভারতে এসেছিলেন।

ভারতে আসার পরপরই মানসিক অবসাদ ও মস্তিষ্কের প্রদাহ নিয়ে ওই তরুণ কেরালার একটি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন বলেও জানিয়েছে বিভিন্ন গণমাধ্যম।

দ্য নিউজ মিনিট নামে আরেকটি সংবাদমাধ্যম বলছে, ১৯ জুলাই আমিরাতে ওই তরুণের মাঙ্কিপক্স শনাক্ত হয়। জ্বর নিয়ে ২৭ জুলাই হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।
মাঙ্কিপক্স সংক্রমিত তরুণের মৃত্যু নিয়ে একটি তদন্ত শুরু করার নির্দেশ দিয়েছে কেরালার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। তদন্তে তাঁর মৃত্যুর কারণ উদ্‌ঘাটনের চেষ্টা করা হবে।

ভারতে এখন পর্যন্ত পাঁচজনের মাঙ্কিপক্স শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে চারজন কেরালা ও একজন দিল্লির। কেরালার চারজন সম্প্রতি বিদেশ থেকে ভারতে ফেরেন।

ভারত থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন