চেপিলা বলেন, সাধারণত বিমানবন্দরে অবতরণের সময় কয়েক শ মিটার রানওয়ে থাকে। কিন্তু এখানে সে ধরনের কিছু ছিল না। এটাই ছিল বড় চ্যালেঞ্জ।

এই চ্যালেঞ্জের স্পনসর ছিল একটি অস্ট্রেলীয় পানীয় কোম্পানি। তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়, ২০২১ সাল থেকে এই চ্যালেঞ্জের পরিকল্পনা চলছিল। এর জন্য ৬৫০ বারের বেশি পরীক্ষামূলক অবতরণের প্রয়োজন ছিল।

চেপিলা মূলত এয়ারবাস এ৩২০ উড়োজাহাজের ক্যাপ্টেন। তবে উড়োজাহাজ চালানোর ক্ষেত্রে তাঁর বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য অর্জন আগে থেকেই রয়েছে। এর আগে ২০১৮ সালে রেড বুল এয়ার রেসিং জিতেছেন তিনি। এ ছাড়া পোল্যান্ডের সোপোটে কাঠের সাঁকোতে উড়োজাহাজ নামিয়েছিলেন তিনি।

বুর্জ আল আরব হোটেলের ৫৯ তলার ওপর অবস্থিত হেলিপ্যাডটিতে ১৯৯৯ সাল থেকে বিখ্যাত সব আন্তর্জাতিক ক্রীড়া তারকাকে নিয়ে নানা আয়োজন করা হচ্ছে। দুবাইয়ের বিখ্যাত এই হোটেলের হেলিপ্যাডে পারফর্ম করা বিখ্যাত কয়েকজনের তালিকায় ঠাঁই করে নিলেন চেপিলা। এর আগে ২০০৫ সালে এখানে টেনিস খেলেছিলেন রজার ফেদেরার ও আন্দ্রে আগাসি। সাবেক ফর্মুলা ওয়ান গ্র্যান্ড পিক্স বিজয়ী ডেভিড ক্লথহার্ড ২০১৩ সালে এখানে পারফর্ম করেছিলেন।