গত বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের ওয়াজিরাবাদে আজাদি মিছিল চলার সময় হামলা চলে ইমরান খানের ওপর। একে-৪৭ দিয়ে গুলি করা হয় ইমরান খান ও তাঁর পাশে দাঁড়িয়ে থাকা তেহরিক-ই-ইনসাফ পিটিআইয়ের নেতাদের। প্রাণে রক্ষা পেলেও চারটি গুলি লাগে ইমরান খানের ডান পায়ে। সঙ্গে সঙ্গেই লাহোরের একটি হাসপাতালে নেওয়া হয় ইমরান খানকে। সেখানে অস্ত্রোপচার হয়। গত শুক্রবার সংবাদমাধ্যমকে ইমরান খান বলেন, খোদা আমায় দ্বিতীয় জীবন দিয়েছেন। তার জন্য অশেষ ধন্যবাদ।

খালিজ টাইমসের খবরে বলা হয়েছে, গত বৃহস্পতিবার হামলাকারীকে আটক করেছিলেন ইবতিশাম। এরপর ইমরান খান তাঁর সঙ্গে দেখা করেন। ইবতিশামের সঙ্গে দেখা করে ইমরান খান বলেন, ‘তুমি পাকিস্তানের হিরো। অসাধারণ সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছ। আমার এটা খুব ভালো লেগেছে।’

হামলার দিন ইবতিশাম যে জামা পরেছিলেন, ইমরানের সঙ্গে দেখা করার দিন তা সঙ্গে এনেছিলেন। ইমরান খান সেই শার্টে স্বাক্ষরও করেন।

হামলার দিনের একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, বন্দুক উঁচিয়ে গুলি চালাচ্ছে হামলাকারী। সেই সময়ই একজন পেছন থেকে আততায়ীর হাত চেপে ধরে বন্দুক কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করছেন ইবতিশাম।