তবে আগাম জামিন পাওয়া শাহবাজ ও হামজা শনিবার আদালতে হাজির হননি। আদালতে হাজির না হতে তাঁদের আইনজীবীরা লিখিত অনুরোধ করেছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফের আইনজীবী আমজাদ পারভেজ জানিয়েছেন, সরকারি কাজে ইসলামাবাদে থাকায় তাঁর মক্কেল আদালতে হাজির হতে পারছেন না।

হামজা শাহবাজের আইনজীবী রাও আওরঙ্গজেব বলেছেন, পিএমএল-এন নেতার পিঠে তীব্র ব্যথা। তিনি চিঠির সঙ্গে মেডিকেল রিপোর্ট সংযুক্ত করেছেন।

তদন্ত সংস্থা এফআইএর কৌঁসুলি ফারুক বাজওয়ায় শাহবাজ শরিফ ও হামজা শাহবাজের হাজির না হতে আদালতে দাখিল আবেদনে কোনো আপত্তি জানাননি।

বিচারক শাহবাজ শরিফ ও হামজা শাহবাজের আবেদন আমলে নিয়ে অভিযোগ গঠনের জন্য আগামী ৭ সেপ্টেম্বর তাঁদের আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন।

২০২০ সালের নভেম্বর মাসে অর্থ পাচারসহ একাধিক আইনে শাহবাজ শরিফ এবং তাঁর দুই ছেলে হামজা ও সুলেমান শাহবাজের বিরুদ্ধে এ মামলা করে এফআইএ।

পাকিস্তান থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন