আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে পাঞ্জাবের ওয়াজিরাবাদে ইমরান খানের লংমার্চের বহরে ঢুকে গুলি চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা। এতে ইমরান খানসহ দলটির বেশ কয়েকজন নেতা–কর্মী আহত হয়েছেন। ইমরানের পায়ে তিন–চারটি গুলি লেগেছে বলে তাঁর দলের নেতারা জানিয়েছেন।

গুলিবিদ্ধ ইমরান খানকে লাহোরের শওকত খানুম হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে বলে পাকিস্তানভিত্তিক জিও নিউজ জানিয়েছে।

পাকিস্তানে আগাম নির্বাচনের দাবিতে করাচি থেকে রাজধানী ইসলামাবাদের উদ্দেশে লংমার্চ করছেন ইমরান খান। লংমার্চে কনটেইনার ব্যবহার করে বিশেষ গাড়ি তৈরি করা হয়েছে। এ গাড়িতে যাত্রা করছিলেন ইমরান খান। লংমার্চ আজ পাঞ্জাবের ওয়াজিরাবাদ এলাকায় পৌঁছালে ইমরানের ওপর এই হামলা হয়। পিটিআই নেতারা বলছেন, ইমরান খানকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা চালানো হয়েছে।

হামলার সময় ইমরান খানের পাশে থাকা ইমরান ইসমাইল নামের পিটিআইয়ের এক নেতা বলেছেন, বন্দুকধারী কনটেইনারের সামনে এসে গুলি করেন। তাঁর হাতে থাকা একে-৪৭ রাইফেল দিয়ে গুলি চালানো হয়। হামলায় পিটিআই নেতা ফয়সাল জাভেদও আহত হয়েছেন।