ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম ইউনাইটেড প্রেস ইন্টারন্যাশনাল (ইউপিআই) এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, নিউইয়র্কের বাসিন্দা স্টেফানি হুইটলির পোষা বিড়াল লিলি। বয়স আট বছর পেরিয়েছে। সাধারণত সারা দিন নিজের মতো ঘুরে বেড়ায় বিড়ালটি। রাত হলে নিজে নিজে বাড়িতে ফিরে আসে। প্রায় দুই সপ্তাহ আগে পরিবারসহ লং আইল্যান্ডের একটি বাড়িতে ওঠেন স্টেফানি। এখানে এসেও লিলি আগের মতোই ঘোরাফেরা করত।

তবে হঠাৎই এক রাতে নিয়মের ব্যত্যয় ঘটে। সেই রাতে লিলি আর বাড়ি ফেরেনি। এরপর দিন পেরিয়ে রাত আসে, রাত পেরিয়ে দিন, কিন্তু লিলির দেখা পাওয়া যায়নি। স্টেফানি বুঝতে পারেন, লিলি বাড়ি ফেরার পথ ভুলে গেছে। হারিয়ে গেছে প্রিয় লিলি। আশপাশে খুঁজেও তিনি লিলির দেখা পাননি। পোষা বিড়াল হারিয়ে যাওয়ায় মন খারাপ স্টেফানি ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের।

এর চার দিন পর লিলি নিজে নিজেই বাড়ির দরজায় এসে হাজির হয়। কলবেল চেপে ফিরে আসার কথা জানান দেয়। হঠাৎ বেজে ওঠা কলিং বেলের আওয়াজ শুনে দরজা খুলেই লিলিকে দেখতে পান স্টেফানি। খুশিতে ভরে ওঠে তাঁর মন। পুরো ঘটনাটি স্টেফানির বাড়ির দরজায় থাকা ভিডিও ক্যামেরায় রেকর্ড হয়।

লিলি ফেরত আসার পর স্টেফানি সংবাদমাধ্যমকে বলেন, ‘লিলি একটা স্মার্ট বিড়াল। লিলিকে ফেরত পেয়ে আমরা আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েছিলাম, কেঁদে ফেলেছিলাম। আমাদের পরিবারের জন্য এটা অসাধারণ একটা মুহূর্ত ছিল।’

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন