ব্রাজিলের নির্বাচন কমিশন গত রোববার ঘোষণা দেয়, লুলা প্রায় ৫১ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। তবে বলসোনারো এখনো পরাজয় স্বীকার না করলেও তাঁর মন্ত্রিসভা ইতিমধ্যে ক্ষমতা হস্তান্তরপ্রক্রিয়া শুরু করেছে। আগামী ১ জানুয়ারি প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্ষমতা গ্রহণ করবেন লুলা।

ব্রাজিলের সাও পাওলো ও রিও ডি জেনিরো শহরে গত বুধবার বলসোনারোর সমর্থকেরা বিক্ষোভ মিছিল করেন। তাঁরা ব্রাজিলের পতাকাসহ নানা বাদ্যযন্ত্র নিয়ে লুলাবিরোধী স্লোগান দেন।

মিছিলে অংশ নেওয়া ৬৫ বছর বয়সী সাবেক সরকারি কর্মকর্তা রেইনাল্ডো দা সিলভা বলেন, ‘আমরা আশা করছি, এ পরিস্থিতিতে সেনাবাহিনী হস্তক্ষেপ করবে। আমরা জানি, নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে। আমি মিছিলে এসেছি কারণ, আমি ব্রাজিলকে উন্মুক্ত দেখতে চাই। সমাজতন্ত্র ব্রাজিলের সঙ্গ যায় না।’

ব্রাজিলের অনলাইন গণমাধ্যম ইউওএল জানিয়েছে, রাজধানী ব্রাসিলিয়াসহ নয়টি প্রদেশে এ ধরনের বিক্ষোভ মিছিল হয়েছে। তবে এ বিষয়ে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় কোনো মন্তব্য করেনি।