বিজ্ঞাপন

নাগরিকদের উদ্দেশে সিডিস বলেছে, ‘মুরগিকে চুমু খাবেন না বা জড়িয়ে ধরবেন না। এতে আপনার মুখে জীবাণু ছড়িয়ে পড়তে পারে এবং আপনাকে অসুস্থ করে তুলতে পারে।’

সিডিসির পক্ষ থেকে সতর্ক করে বলা হয়, পোলট্রি বিশেষ করে মুরগি ও হাঁস স্যালমোনেলার জীবাণু বহন করতে পারে। স্বাস্থ্যবান ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন দেখালেও তাতে জীবাণু থেকে যেতে পারে। এসব মুরগি ও হাঁস যেসব এলাকায় ঘুরে বেড়ায় সেখানেও সহজে এসব জীবাণু ছড়িয়ে পড়তে পারে।

স্যালমোনেলা সংক্রমণের ফলে জ্বর, ডায়রিয়া, পেট ব্যথা ও বমির উপসর্গ দেখা দেয়। অধিকাংশ ক্ষেত্রে কোনো চিকিৎসা ছাড়াই রোগী সুস্থ হয়ে ওঠে। তবে পরিস্থিতি জটিল হয়ে গেলে মৃত্যু পর্যন্ত ঘটতে পারে।

সিডিসির তথ্য অনুযায়ী, সাম্প্রতিক প্রাদুর্ভাবে যারা অসুস্থ হয়েছেন তাদের এক-তৃতীয়াংশের বয়স পাঁচ বছরের কম। গত ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝি ৪৩ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছিল। তাদের কারও মৃত্যু হয়নি।

সিডিসি পরামর্শ দিয়ে বলেছে, হাঁস-মুরগির সংস্পর্শে আসার পর অবশ্যই হাত ধুতে হবে এবং শিশুদের হাঁস-মুরগি ধরা আটকাতে হবে।

সিডিসির পূর্বাভাস অনুযায়ী, স্যালমোনেলা ব্যাকটেরিয়া প্রতি বছর যুক্তরাষ্ট্রে সাড়ে ১৩ লাখ মানুষকে সংক্রমিত করে এবং ৪২০ জনের মৃত্যু ঘটায়। এ ব্যাকটেরিয়া মূলত কাঁচা বা কম সিদ্ধ মাংস, ডিম ও অন্যান্য পণ্যে থাকতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন