বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

স্টুয়ার্ট জানান, আংটির গায়ে খোদাই করে ‘আর.ডব্লিউ.ডি’ লেখা আছে। এর সূত্রে তিনি ইন্টারনেটে মালিককে খুঁজতে শুরু করেন। নিজের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের অ্যাকাউন্ট থেকেও এ ব্যাপারে পোস্ট দিয়ে সবার সহায়তা চান তিনি। ডেনেক জানান, তিনি ১৯৪৩ সালে কিছুদিনের জন্য রাইখফিল্ডে ছিলেন। তখন আংটিটি হারিয়ে ফেলেন। তিনি কলোরাডো স্কুল অব মাইনসের শিক্ষার্থী ছিলেন। আংটিটি ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ‘ক্লাস রিং’।

এরই মধ্যে স্টুয়ার্টের সঙ্গে ডেনেকের টেলিফোনে কথা হয়েছে। সাত দশক আগে হারানো আংটির খোঁজ পেয়ে অভিভূত ডেনেক। এ জন্য স্টুয়ার্টকে অনেক ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এটা সত্যিই অভিভূত হওয়ার মতো ঘটনা।’

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন