বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৪০ হাজার মার্কিন ডলার খরচ করে সেতুটি পুনর্নির্মাণের পরিকল্পনা করেছিল স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। পুনর্নির্মাণের অংশ হিসেবে পাশেই সিবার্লিং স্ট্রিট নামের একটি সড়কের পাশে একটি মাঠের ভেতর সেতুটির পুরো অবকাঠামো নিয়ে রাখা হয়েছিল। সম্প্রতি পুলিশ জানতে পারে, সেই সেতু চুরি হয়ে গেছে। তবে কবে কখন থেকে সেতুটি উধাও, তা তারা নিশ্চিত করে জানাতে পারেনি।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম আকরন বিকন জার্নাল-এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তদন্ত কর্মকর্তারা বলেছেন, চোরেরা কয়েক ধাপে সেতুটি চুরি করেছে। প্রথমে তারা সেতুটির অবকাঠামোটি খুলে আলাদা করে। এরপর সেগুলো নিয়ে যায়।

পুলিশের মুখপাত্র লেফটেন্যান্ট মাইক মিলার বলেন, সেতুটি এমনভাবে তৈরি করা, যেটি খুলে ফেলা সহজ হয়েছে। পুলিশ বলেছে, তারা নিশ্চিত নয় সেতুটি দিয়ে চোরেরা কী করতে চায়। তবে এই সেতুর উপাদান দিয়ে অন্য কাজ করা যাবে।

এ বিষয়ে মিলার বলেন, সেতুটি বাগান ঘেরা ও অন্যান্য ইঞ্জিনিয়ারিং কাজে ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে পুলিশের ধারণা, সেতু যে বিক্রি করা যায়, সেই ধারণা প্রমাণ করতেই চাইছে চোরেরা। সেতু চুরির ঘটনার কোনো তথ্য থাকলে তা দিতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে পুলিশ।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন