বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এর আগে গত ২০ সেপ্টেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্টের কার্যালয় হোয়াইট হাউস জানায়, আসছে নভেম্বর থেকে করোনার পূর্ণ ডোজ টিকা নেওয়া থাকলে ৩৩ দেশের নাগরিকদের জন্য আকাশপথে ভ্রমণের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হবে। ওই তালিকায় ছিল চীন, ভারত, ব্রাজিলসহ ইউরোপের বেশির ভাগ দেশ। তবে করোনার কোন টিকার পূর্ণ ডোজ নিলে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের অনুমতি মিলবে, তা সে সময় জানানো হয়নি।

নতুন নির্দেশনা অনুযায়ী ছয়টি প্রতিষ্ঠানের টিকা নেওয়া থাকলে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করা যাবে বলে সিডিসির এক মুখপাত্র শুক্রবার রয়টার্সকে জানিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) ও ডব্লিউএইচও ওই টিকাগুলোর অনুমোদন দিয়েছে। তবে ছয় প্রতিষ্ঠানের নাম রয়টার্সের প্রতিবেদনে জানানো হয়নি।

শুক্রবারেই সিডিসি জানায়, কোন কোন টিকা নিলে বিদেশি পর্যটকেরা যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের অনুমতি পাবেন, চলতি সপ্তাহের শুরুতে তা এয়ারলাইনসগুলোকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। এতে তারা পদ্ধতিগত সব প্রস্তুতি নিতে পারবে। বাকি নির্দেশনা ও তথ্য তাদের পরবর্তী সময়ে জানানো হবে।

এদিকে ভ্রমণের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের এ পদক্ষেপকে সন্তোষজনক বলে উল্লেখ করেছে আমেরিকান এয়ারলাইনস, ডেলটা এয়ারলাইনস, ইউনাইটেড এয়ারলাইনসসহ বিভিন্ন এয়ারলাইনসের প্রতিনিধিত্বকারী বাণিজ্যিক জোট ‘এয়ারলাইনস ফর আমেরিকা’।

আগে থেকেই ডব্লিউএইচও অনুমোদিত টিকাগুলো যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণের ক্ষেত্রে গ্রহণের জন্য মার্কিন প্রশাসনকে চাপ দিয়ে আসছিল বিভিন্ন দেশ। কারণ, শুধু এফডিএ অনুমোদিত টিকাগুলো বিশ্বের অনেক দেশের নাগরিকদেরই দেওয়া হচ্ছে না। ফলে যুক্তরাষ্ট্র ভ্রমণে বাধার মুখে পড়ছিলেন ওই দেশগুলোর নাগরিকেরা।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন