default-image

ইরানের ইসলামিক রেভল্যুশনারি গার্ডের (আইআরজিসি) দুই কর্মকর্তাকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে  যুক্তরাষ্ট্র। ২০১৯ ও ২০২০ সালে ইরানে বিক্ষোভের সময় মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগে তাঁদের বিরুদ্ধে এই পদক্ষেপ নিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

রয়টার্স ও আল–জাজিরার খবরে বলা হয়,  মঙ্গলবার মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেন এক বিবৃতিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, কালো তালিকাভুক্ত করায় আইআরজিসি কর্মকর্তা আলী হেমাতিয়ান, মাসউদ সাফদারি ও তাঁদের পরিবারের সদস্যরা যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে পারবেন না।

অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেন বলেন, ‘ইরানে নিপীড়ন এবং মানবাধিকার লঙ্ঘনের জন্য দায়ী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে উপযুক্ত সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ আমাদের বিবেচনায় থাকবে।’

২০১৯ ও ২০২০ সালে বিক্ষোভের সময় আটক ব্যক্তি এবং রাজনৈতিক বন্দীদের ওপর নির্যাতন চালিয়ে ওই দুই কর্মকর্তা মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে অভিযোগ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

বিজ্ঞাপন

ইরানি কর্মকর্তাদের ওপর এ নিষেধাজ্ঞা এল যখন বাইডেন প্রশাসন এবং তেহরান সরকার ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তির অচলাবস্থা কাটাতে চেষ্টা করছে। যেখানে আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার বিনিময়ে পরমাণবিক কর্মসূচি থামিয়ে দিতে রাজি হয় ইরান।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের পূর্বসূরি ডোনাল্ড ট্রাম্প ২০১৮ সালে ইরানের সঙ্গে পরমাণু চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে বের করে আনেন। এরপর তেহরানের ওপর বেশ কয়েকটি অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ট্রাম্প প্রশাসন।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন