বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

নিউইয়র্কের টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিশ্বের নানা ধর্ম ও বর্ণের বৈচিত্র্যময় মানুষের বাস নিউইয়র্ক শহরে। সিটি কাউন্সিলের ইতিহাসে প্রথম মুসলিম সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হলেন বাংলাদেশি-আমেরিকান শাহানা। যদিও নিউইয়র্কের বাসিন্দাদের মধ্যে মুসলিম ধর্মাবলম্বীর সংখ্যা আনুমানিক ৭ লাখ ৬৯ হাজার।

নির্বাচনের জেতার পর মঙ্গলবার রাতেই বিবৃতি দেন শাহানা। তিনি বলেন, সিটি কাউন্সিলের প্রথম মুসলিম নারী এবং ডিস্ট্রিক্ট-৩৯ থেকে যেকোনো ধর্মের প্রথম নারী সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় তিনি গর্বিত। তাঁকে কাউন্সিলে নির্বাচিত করার জন্য স্বেচ্ছাসেবী এবং তাঁকে যাঁরা সমর্থন দিয়েছেন, তাঁদের কৃতজ্ঞতা জানান শাহানা।

শাহানা বলেন, ‘সবাই মিলে আমরা বর্ণবাদবিরোধী ও নারীবাদী একটি শহর গড়ে তুলব। আমরা এমন এক শহর চাই, যে শহর সবচেয়ে দুর্বলদের রক্ষা করবে, সবার জন্য সমান শিক্ষার ব্যবস্থা ও জলবায়ু সংকট নিরসনে বিনিয়োগ করবে, যেখানে আমাদের অভিবাসী প্রতিবেশীরা নিজেদের নিরাপদ মনে করবে।’

এবারের সিটি কাউন্সিল নির্বাচনে আরও দক্ষিণ এশীয় বংশোদ্ভূত নারী প্রার্থী ইতিহাস গড়েছেন। তিনি হলেন শেকড় কৃষ্ণাণ। কুইনস এলাকার জ্যাকসন হাইটস ও এলমহার্স্ট নিয়ে গঠিত আসন থেকে জয়ী হয়েছেন তিনি। তবে দক্ষিণ এশীয় বংশোদ্ভূত প্রার্থী ফেলিসিয়া সিং তাঁর রিপাবলিকান প্রতিদ্বন্দ্বীর কাছে হেরে গেছেন।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন