বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়েছে, ফাইজারের তৈরি এই বড়ির নাম প্যাক্সলোভিড। যুক্তরাষ্ট্রে এমন সময়ে এই ওষুধের অনুমোদন দেওয়া হলো, যখন করোনার অমিক্রনের সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে। যে কারণে অনেকেরই বড়দিনকেন্দ্রিক ছুটির পরিকল্পনা ঝুঁকির মুখে পড়েছে। এ ছাড়া সংক্রমণ বাড়তে থাকায় করোনার পরীক্ষার সুযোগ পেতে হিমশিম খেতে হচ্ছে দেশটির নাগরিকদের।
করোনা প্রতিরোধী বড়ি প্যাক্সলোভিডের পরীক্ষায় দেখা গেছে, এই ওষুধ করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তির হাসপাতালে যাওয়া ও মৃত্যুর ঝুঁকি ৮৮ শতাংশ কমায়। এরপর এফডিএ বড়িটির অনুমোদন দিল।

এই বড়ি অনুমোদন দেওয়ার পর এ নিয়ে কথা বলেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেন, আজ যে ঘটনা ঘটল, তা বিজ্ঞানের সক্ষমতা ও যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিকদের উদ্ভাবন ক্ষমতার প্রতিচিত্র। ফাইজার যাতে এই বড়ির উৎপাদন বাড়াতে পারে, সেই জন্য আইনি সহায়তা দেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বাইডেন।

এই ওষুধ কিনছে যুক্তরাষ্ট্র। এ প্রসঙ্গে হোয়াইট হাউসের করোনাভাইরাসের মহামারিবিষয়ক সমন্বয়ক জেফ জিয়েন্টস বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এই ওষুধ কেনার জন্য ৫৩০ কোটি মার্কিন ডলার ব্যয় করছে। দেশটি এই ওষুধের এক কোটি কোর্স কিনবে। আসছে জানুয়ারিতে ২ লাখ ৬৫ হাজার কোর্স হাতে পাবে সরকার।

তবে এফডিএর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, এই বড়ি টিকার বিকল্প নয়।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন