বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

যুক্তরাজ্যের গণমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, ফাউসি বলেন, এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই, অমিক্রনের সংক্রমণ ছড়ানোর ক্ষমতা অনেক বেশি। বিশ্বজুড়ে এই ধরন একপ্রকার তাণ্ডব চালাচ্ছে।

করোনাভাইরাসের এই ধরন শনাক্ত হওয়ার পর নতুন করে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে বিভিন্ন দেশ। ইউরোপের দেশ ফ্রান্স ও জার্মানি ভ্রমণের ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করেছে। বড়দিনের ছুটিতে যাতে অমিক্রনের সংক্রমণ অতিমাত্রায় না ছড়ায়, সে জন্য নেদারল্যান্ডস কঠোর লকডাউন আরোপ করেছে।

এ ছাড়া যাঁরা করোনাভাইরাসের টিকা নিয়েছেন, তাঁদের বুস্টার ডোজ দেওয়ার ক্ষেত্রে গতি বাড়িয়েছে বিভিন্ন দেশের সরকার। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনার কারণে গুরুতর অসুস্থতা ঠেকাতে কার্যকর এই ডোজ। এমন ঘোষণার পর এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

এদিকে ফাউসি গতকাল বলেন, অমিক্রন ধরন যদি যুক্তরাষ্ট্রে দ্রুত ছড়াতে শুরু করে, তবে তা দেশজুড়ে বিদ্যমান স্বাস্থ্যব্যবস্থার ওপর ভয়াবহ প্রভাব ফেলবে। দেশটির হাসপাতালগুলোর ওপর এর প্রভাব পড়তে যাচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ফাউসি বলেন, জনসাধারণকে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে হবে। তাঁদের মাস্ক ব্যবহার করতে হবে, পারস্পরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। এ ছাড়া যাঁরা এখনো টিকা ও বুস্টার ডোজ নেননি, তাঁদের এসব ডোজ নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

এর আগে গত শুক্রবার হোয়াইট হাউসে সংবাদ সম্মেলনে ফাউসি বলেছিলেন, যাঁরা টিকা নেননি, তাঁরা সংক্রমিত ও গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন