বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ম্যাকেঞ্জি বলেন, ‘আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার সম্পন্ন হওয়ার ঘোষণা দিতে আমি এখানে এসেছি। আমরা আফগানিস্তানের সবাইকে বের করে আনতে পারিনি। তবে আমি মনে করি, যদি আমরা আরও ১০ দিন থাকতে পারতাম, তাহলে আমরা সবাইকে সরিয়ে নিতে পারতাম। আর এমনটাই আমাদের ইচ্ছা ছিল।’ ম্যাকেঞ্জি এটাও স্বীকার করেন, এখনো আফগানিস্তানে অনেক মানুষ হতাশ। পরিস্থিতি খুবই কঠিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহারের এই ঘটনাকে তালেবান ঐতিহাসিক মুহূর্ত বলে অভিহিত করেছে। আফগানিস্তান এখন পূর্ণ স্বাধীনতা অর্জন করেছে বলে ঘোষণা দিয়েছে তালেবান।

ম্যাকেঞ্জি জানান, কাবুলের স্থানীয় সময় অনুসারে গতকাল দিবাগত রাত ১২টা বাজার ১ মিনিট আগেই সি-১৭ সামরিক বিমানটি ছেড়ে যায়। এ বছরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ৩১ আগস্ট সেনা প্রত্যাহারের সময়সীমা ঘোষণা করেন।

গত দুই সপ্তাহে কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ হামলায় কমপক্ষে ১৭৫ জনের প্রাণহানি হয়েছে। নিহত ব্যক্তিদের মধ্যে ১৩ জন মার্কিন সেনাও রয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন