বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পাকিস্তানের দুর্গম অঞ্চলে লুকিয়ে থাকা আল-কায়েদা নেতা ওসামা বিন লাদেনকে ধরতে যুক্তরাষ্ট্রের নেভি সিল অভিযানটি পরিচালনা করে। এ সময় লাদেনের লেখা হাজার হাজার ব্যক্তিগত চিঠি ও নথি উদ্ধার করে নেভি সিল। এসব নথি যাচাই-বাছাই করেন লেখক ও ইসলামি বিশেষজ্ঞ নেলি লাহুদ। সম্পতি তিনি বিষয়টি নিয়ে সিবিএসকে প্রায় এক ঘণ্টার সাক্ষাৎকার দেন। তিনি বলেন, আল–কায়েদা ধারণাই করতে পারেনি যে নাইন ইলেভেন হামলার পর যুক্তরাষ্ট্র বড় ধরনের যুদ্ধে নামবে।

default-image

নাইন ইলেভেনের পর সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধের ঘোষণা দেয় যুক্তরাষ্ট্র, যার অংশ হিসেবে আফগানিস্তানে হামলা করে তারা। যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত টুইন টাওয়ারের নৃশংস ওই ঘটনার পর যুক্তরাষ্ট্রের নেওয়া পদক্ষেপ আল–কায়েদাকে হতবাক করে। লাদেনের লেখা চিঠিতে এমন তথ্য পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন নেলি লাহুদ। তিনি বলেন, লাদেন মনে করেছিলেন মুসলিম–অধ্যুষিত আফগানিস্তানে হামলার প্রতিবাদে যুক্তরাষ্ট্রের মানুষ রাস্তায় নেমে এসে দেশটির সরকারি সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানাবেন।

কিন্তু ওসামা বিন লাদেনের ওই ধারণাটি ভুল ছিল বলে জানান নেলি লাহুদ। আল–কায়েদা কর্মীদের কাছে লেখা সেসব চিঠি নিয়ে সাক্ষাৎকারের কথা বলেন নেলি লাহুদ। টুইন টাওয়ারে হামলার পর প্রায় তিন বছর পালিয়ে থাকার কারণে আল–কায়েদা সহযোগীদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেননি বিন লাদেন। ২০০৪ সালে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে আবারও যোগাযোগ হয় তাঁর। তখনই তিনি যুক্তরাষ্ট্র নতুন করে হামলার পরিকল্পনা করেন।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন