পুতিনের দুই মেয়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। অলিম্পিকে স্বর্ণজয়ী ৩৮ বছর বয়সী সাবেক এই জিমন্যাস্টের ওপরও নিষেধাজ্ঞা আরোপের দাবি উঠেছে বলে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়।

নিজের ব্যক্তিগত জীবন সম্পর্কে পুতিন খুবই গোপনীয়তা বজায় রাখেন। রাশিয়ার ‘গোপন ফার্স্ট লেডির’ সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়টি কখনো স্বীকার করেননি তিনি।

ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদন অনুযায়ী, পুতিন ব্যক্তিগত আক্রমণ হিসেবে নিতে পারেন, এমন উদ্বেগ থেকে মার্কিন কর্মকর্তারা কাবায়েভার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। মার্কিন সংবাদমাধ্যমটি লিখেছে, ‘পুতিনের প্রতি এটা একান্ত ব্যক্তিগত আক্রমণ হিসেবে মনে করা হবে। এটি রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উত্তেজনা আরও বাড়াতে পারে।’

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে হামলা শুরু করে রাশিয়া। এর পর থেকে দেশটির ওপর একের পর এক নিষেধাজ্ঞা দিয়ে আসছে যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ ও তাদের মিত্র দেশগুলো।

আর্থিক, ব্যবসায়িক ও সামরিক প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তির পাশাপাশি পুতিন, তার পরিবারের সদস্য ও ঘনিষ্ঠজনদেরও নিষেধাজ্ঞার আওতায় আনা হচ্ছে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন