বুধবার সেসাপেক পুলিশ জানায়, গুলি চালানো ওই ব্যক্তি স্টোরেরই এক কর্মী। গুলি করে ছয়জনকে হত্যার পর তিনিও আত্মঘাতী হন। স্থানীয় সময় গত মঙ্গলবার রাতে এ ঘটনা ঘটে।

সেসাপেকের পুলিশ প্রধান মার্ক সোলেস্কি বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, আঘাত দেখে এটি স্বপ্ররোচিত হামলা মনে হয়। হামলাকারী পিস্তল দিয়ে গুলি চালিয়েছেন। তবে তাঁর উদ্দেশ্য এখনো স্পষ্ট নয়।

প্রত্যক্ষদর্শীর বরাতে স্থানীয় গণমাধ্যমে বলা হচ্ছে, ওয়ালমার্ট স্টোরের পেছনে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এরপর আহত কমপক্ষে পাঁচজনকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। এদিকে বুধবার ওয়ালমার্টের এক বিবৃতিতে বলা হয়, এ ঘটনায় মর্মান্তিক ঘটনায় তারা মর্মাহত।

যুক্তরাষ্ট্রে থ্যাংকসগিভিং ছুটির দিনের আগে সেসাপেকের এ হামলার ঘটনাকে বড় ধরনের ধাক্কা হিসেবে দেখা হচ্ছে। গত সপ্তাহে কলোরাডোর একটি ক্লাবে বন্দুকধারীর হামলায় পাঁচজন নিহতের ঘটনা ঘটে। ২০১৯ সালে এল পাসোর ওয়ালমার্টে আরও একবার হামলা হয়েছিল। সেবারের ঘটনায় ২২ জন নিহত হন।