ভিডিওতে দেখা যায়, তিমির আঘাতে বোটটির রীতিমতো ভেঙে পড়ার অবস্থা। তিমিটি হামলে পড়লে এর সামনের অংশ ডুবে যায়, আর লাফিয়ে ওঠে বোটের পেছনের অংশ। তিমিটি পিছলে পড়ে গেলে বোটটি আবার সোজা হয়ে ভাসতে থাকে।

কর্মকর্তারা জানান, প্লেমাউথ শহরের হোয়াইট হর্স সৈকতে সকাল ১০টার দিকে ঘটনাটি ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শী রাইডার পার্কহার্স্ট এনবিসি বোস্টনকে বলেন, ‘এটা ছিল পাগলামি। নৌকার মালিক ভুল সময়ে ভুল জায়গায় ছিল, এটাই পুরো ঘটনা।’

পার্কহাস্ট বলেন, ‘আমি ঠিক যেন বোটটিকে উড়তে দেখলাম, মাথা নষ্ট। এটা ছিল পাগলামি, বোটটি তখনো পানিতে ভাসছে, আমি বিশ্বাস করতে পারছিলাম না।’

রোববার এক বিবৃতিতে শহর কর্তৃপক্ষ জানায়, আক্রান্ত বোটের আরোহীদের অবস্থা জানতে প্লেমাউথ হারবারমাস্টার ডিপার্টমেন্টের একটি বোট ওই এলাকায় পাঠানো হয়েছিল।

এতে বলা হয়, ‘কেউ আহত হননি বলে বোটের চালক জানিয়েছেন। অবশ্য নৌযানটির সমুদ্র চলাচলে প্রভাব পড়তে পারে এমন কোনো ক্ষতি হয়নি। এ ঘটনায় তিমিটির কোনো জখম হয়েছে কি না তা স্পষ্ট নয়।’

এনবিসি বোস্টন জানায়, গত শুক্রবার একটি তিমি একটি নৌকাকে ধাক্কা দেয়। এরপর প্রত্যেকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রোববার ভোর পাঁচটা থেকে ওই এলাকাটির ওপর নজর রাখছিলেন বিভাগটির নাবিকেরা।

প্লেমাউথ হারবারমাস্টার শাদ হান্টার বলেন, ওই এলাকায় প্রচুর মাছ থাকায় রোববার সেখানে সৌখিন মৎস্যশিকারীদের প্রচুর নৌকা জড়ো হয়। এসব মাছের কারণে ওই এলাকায় তিমির আনাগোনাও বেড়ে যায়।

তিমির সঙ্গে সম্ভাব্য ধাক্কা এড়াতে নৌকাগুলোকে কমপক্ষে ১০০ গজ দূরে রাখতে চালকদের পরামর্শ দিয়েছে হারবারমাস্টার ডিপার্টমেন্ট। তারা বলছে, এ ধরনের ঘটনা কম হলেও সেটা বোট আরোহী ও তিমি উভয়ের জন্য ঝুঁকির হতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্র থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন