প্রতিষ্ঠানটির বৈশ্বিক জনবলের সংখ্যা ১৫ লাখের বেশি। তারা মূলত ঘণ্টাভিত্তিক কাজ করে থাকে। সংশ্লিষ্ট ওই সূত্র আরও বলেছে, অ্যামাজনের ভয়েস সার্ভিস অ্যালেক্সাসহ বিভিন্ন ডিভাইস সংস্থা, খুচরা বিপণন বিভাগ এবং মানবসম্পদ বিভাগের ওপর ছাঁটাইয়ের প্রভাব বেশি পড়বে। প্রকাশ্যে কথা বলার অনুমতি না থাকায় ওই ব্যক্তি তাঁর নাম প্রকাশে অনিচ্ছা জানিয়েছেন।

ভোক্তারা ব্যাপকভাবে অনলাইনে কেনাকাটার দিকে মনোযোগী হওয়ার কারণে করোনা মহামারি চলাকালীন অ্যামাজন মুনাফার দিক থেকে রেকর্ড করেছিল। গত দুই বছরে অ্যামাজন তাদের জনবল বাড়িয়ে দ্বিগুণ করেছিল। তবে চলতি বছরের শুরুর দিকে অ্যামাজনের প্রবৃদ্ধির পরিমাণ কমে দুই দশকের মধ্যে সর্বনিম্ন পর্যায়ে দাঁড়ায়। সবশেষ ত্রৈমাসে আমাজনকে খানিকটা ঘুরে দাঁড়াতে দেখা গেছে। তবে এ প্রবৃদ্ধি আরও কমে যেতে পারে বলে বিনিয়োগকারীদের সতর্ক করেছে অ্যামাজন।

ছাঁটাইয়ের পরিকল্পনার ব্যাপারে জানতে নিউইয়র্ক টাইমসের পক্ষ থেকে অ্যামাজনের মুখপাত্র ব্র্যাড গ্লাসেরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল। তবে তিনি এ ব্যাপারে মন্তব্য করতে রাজি হননি।

ব্যবসায়িক মডেলে পরিবর্তন এবং অনিশ্চিত অর্থনৈতিক পরিস্থিতির মধ্যে বিশ্বের প্রযুক্তি শিল্প খাতে ছাঁটাইয়ের প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। সম্প্রতি মার্কিন গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলার প্রধান ইলন মাস্ক টুইটারের মালিকানা কিনে নেওয়ার পর প্রতিষ্ঠানটির কর্মিসংখ্যা অর্ধেকে নামিয়ে এনেছেন।

গত সপ্তাহে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামের মূল প্রতিষ্ঠান মেটা ১১ হাজার কর্মীকে ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দিয়েছে। এই সংখ্যা প্রতিষ্ঠানটির মোট কর্মিসংখ্যার প্রায় ১৩ শতাংশ।