বিশ্বের শীর্ষ ধনী ও যুক্তরাষ্ট্রের গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠার টেসলার প্রধান নির্বাহী ইলন মাস্ক ৪ হাজার ৪০০ কোটি মার্কিন ডলারে গত মাসে টুইটার কিনে নেন। টুইটারের কর্মীদের কাছে পাঠানো ইমেইলে মাস্ক বলেছেন, বিশেষ পরিস্থিতি ছাড়া বাড়িতে বসে কাজ করার বিষয়টি গ্রহণযোগ্য হবে না। বিশেষ ক্ষেত্রগুলো তিনি নিজে খতিয়ে দেখবেন। গতকাল বৃহস্পতিবার থেকেই টুইটারের সপ্তাহে কমপক্ষে ৪০ ঘণ্টা কাজের নিয়ম কার্যকর হওয়ার কথা।

টুইটারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এ প্ল্যাটফর্মটি থেকে অনেক বিজ্ঞাপনদাতা সরে গেছেন। ফলে এর আয় ব্যাপকভাবে কমে গেছে। টুইটারের বেশির ভাগ আয় আসে বিজ্ঞাপন থেকে। প্রতিষ্ঠানটি প্রতিবছর বিজ্ঞাপন থেকে ৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় করে।

কর্মী ছাঁটাইয় করে ব্যয় সংকোচনের পাশাপাশি আয় বাড়াতে অ্যাকাউন্টে নীল টিক বা ভেরিফায়েড সেবা চালু করেছে টুইটার। যুক্তরাজ্যে এ সেবা চালু হয়ে গেছে। এটি চালু রাখতে বাসে ৬ দশমিক ৯৯ মার্কিন ডলার করে দিতে হচ্ছে ব্যবহারকারীদের। এ সেবা যাঁরা গ্রহণ করছেন তাঁরা টুইটারের বেশ কিছু ফিচার অন্যদের চেয়ে আগে ব্যবহার করতে পারবেন। মাস্কের আশা, নীল টিক সেবা পুরোপুরি চালু হলে বিজ্ঞাপনদাতাদের ওপর নির্ভরতা অনেকটাই কমে যাবে।

গত বুধবার টুইটারের অডিও ফিচার ‘স্পেসেস’ চালু করেন ইলন মাস্ক। এ উপলক্ষে বিজ্ঞাপনদাতাদের নিয়ে একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করেন তিনি। সেখানে তিনি বিজ্ঞাপনদাতাদের কাছে ব্যবসা নিয়ে নিশ্চয়তা দিয়েছেন তিনি।

তবে টুইটার থেকে জেনারেল মটরস, ইউনাইটেড এয়ারলাইন্স, জেনারেল মিলসের মতো ব্র্যান্ডগুলো বিজ্ঞাপন সরিয়ে নিয়েছে। ইলন মাস্কের অধীনে টুইটার প্ল্যাটফর্ম থেকে ঘৃণা ও বিদ্বেষমূলক বক্তব্য বিষয়ে কী ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয় তা দেখার পর এসব ব্র্যান্ড টুইটারে বিজ্ঞাপন দেওয়ার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।

এদিকে, ইলন মাস্ক তাঁর অধীনে টুইটার আসার পর এখানে ভুয়া ও বট অ্যাকাউন্টের সংখ্যা কমেছে বলে দাবি করেছেন। তিনি এ নিয়ে টুইটারে একটি পোস্টও করেছেন। তাতে ব্যবহারকারীদের কাছে এ বিষয়ে জানতে চেয়েছেন। এ সময় একজন টুইটারে ভিডিও যুক্ত করার সুবিধা চাইলে ইলন মাস্ক বলেছেন, টুইটারে ভিডিও যুক্ত করার সুবিধা আসছে।