সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প গতকাল মঙ্গলবার রাতে ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যের পাম বিচের মার-আ-লাগোতে এক অনুষ্ঠানে বলেন, ‘আমি আজ রাতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট পদে আমার প্রার্থিতা ঘোষণা করছি।’

নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার জন্য ট্রাম্প ইতিমধ্যে কাগজপত্র দাখিল করেছেন। তিনি তাঁর প্রার্থিতার ঘোষণা দিয়ে সমর্থকদের উদ্দেশে বলেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাবর্তন এখনই শুরু হলো।

২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী বাইডেনের কাছে পরাজিত হন ট্রাম্প। কিন্তু ট্রাম্প নির্বাচনে ব্যাপক জালিয়াতির অভিযোগ তোলেন। পরাজয় স্বীকার করতেও অস্বীকৃতি জানান তিনি।

হোয়াইট হাউস ছাড়ার পর ট্রাম্প অনেকবার বাইডেনকে আক্রমণ করেছেন। বাইডেনকে ব্যর্থ, রাষ্ট্রের শত্রু হিসেবে অভিহিত করেছেন।

ইন্দোনেশিয়ার বালিতে আজ জি-২০ সম্মেলনের শেষ দিনের কার্যক্রমে অংশ নিচ্ছেন বাইডেন। সেখান থেকেই তিনি ট্রাম্পকে আক্রমণ করে টুইটার পোস্টটি দেন।

টুইটার পোস্টে একটি ভিডিও যোগ করছেন বাইডেন। ভিডিওতে বলা হয়, ট্রাম্প দেশের অর্থনীতি ধনীদের পক্ষে রাখার কূটকৌশলে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। স্বাস্থ্যসেবাব্যবস্থার ওপর আক্রমণ করেছিলেন। উগ্রপন্থীদের পৃষ্ঠপোষকতা দিয়েছেন। নারী অধিকার ক্ষুণ্ন করেছেন। ২০২০ সালের নির্বাচনের ফল পাল্টে দিতে সহিংসতায় উসকানি দিয়েছিলেন।

বালিতে জি-২০ জোটের নেতাদের সঙ্গে ম্যানগ্রোভ বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে যোগ দেন বাইডেন। সেখানে ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাখোঁও ছিলেন। দুজনের কাছে সাংবাদিকেরা প্রশ্ন করেন, ট্রাম্পের প্রার্থিতার ঘোষণার বিষয়ে তাঁদের কোনো প্রতিক্রিয়া আছে কি না। তখন দুই নেতা কিছুক্ষণ একে অপরের দিকে তাকান। পরে বাইডেন ‘না’–সূচক জবাব দেন। আর মাখোঁ চুপ থাকেন।