বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বাংলাদেশে ইউনিসেফের প্রতিনিধি শেলডন ইয়েট বলেন, শিশুদের জীবনমান উন্নয়নে নীতিনির্ধারকদের জবাবদিহির সম্মুখীন করতে গণমাধ্যম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ইউনিসেফ মীনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ডস শিশু সাংবাদিকদের প্রতিবেদনকেও স্বীকৃতি দেয়। এতে বোঝা যায়, শিশুদের জীবনকে প্রত্যক্ষভাবে প্রভাবিত করে, এমন সব বিষয়ে শিশুদের সরাসরি কথা বলার সুযোগ করে দেওয়া কতটা গুরুত্বপূর্ণ।

এ বছর ৭০০ প্রতিযোগীর মধ্য থেকে ২২ জনকে নির্বাচন করা হয়। আয়োজনের অন্যতম বিচারক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক রোবায়েত ফেরদৌস বলেন, এ বছর অনেক ভালো প্রতিবেদন জমা পড়েছিল। তিনি আশা করেন, ভবিষ্যতে আরও বেশি শিশু-সংবেদনশীল, নৈতিকতাসমৃদ্ধ প্রতিবেদন হবে।

মীনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড ২০২১-এ টেক্সট ক্যাটাগরিতে প্রথম পুরস্কার ঢাকা ট্রিবিউনের কোহিনুর খৈয়াম, দ্বিতীয় পুরস্কার এনটিভির মো. খায়রুল বাশার আশিক, তৃতীয় পুরস্কার নিউজবাংলা টোয়েন্টফোর ডটকমের মো. বনি আমিন ও দ্য বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের উম্মে মারজানা পেয়েছেন।

default-image

আলোকচিত্রে প্রথম পুরস্কার দৈনিক অধিকারের ইমরান হোসেন, দ্বিতীয় পুরস্কার ও তৃতীয় পুরস্কার প্রথম আলোর দীপু মালাকার এবং মো. সাজিদ হোসেন পেয়েছেন। এ ছাড়া বিশেষ পুরস্কার পেয়েছেন দ্য ডেইলি স্টারের প্রবীর দাস।

ভিডিও ক্যাটাগরিতে প্রথম পুরস্কার একাত্তর টিভির নাদিয়া শারমিন, দ্বিতীয় পুরস্কার সময় টিভির মারজিয়া হাশমি মম এবং তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছেন জিটিভির ইসমাইল হোসেন জুয়েল।

বিশেষ মীনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড টেক্সটভিত্তিক ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছেন প্রথম আলোর সামছুর রহমান, দ্য ডেইলি স্টারের নিলিমা জাহান, ঢাকা পোস্টের আদনান রহমান ও জসিম উদ্দিন এবং বাংলা ট্রিবিউনের মো. শাহেদুল ইসলাম।

শিশুদের মীনা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড (১৮ বছরের নিচে) টেক্সট ক্যাটাগরিতে প্রথম পুরস্কার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের রাফসান নিঝুম, দ্বিতীয় পুরস্কার প্রথম আলোয় প্রকাশিত লেখার জন্য মো. সাজ্জাদুর রহমান এবং তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছেন আজকের গোপালগঞ্জের পিয়াল সাহা।

এ ছাড়া ১৮ বছরের নিচে ভিডিও ক্যাটাগরিতে প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় পুরস্কার পেয়েছে এটিএন বাংলার আফরিন আক্তার, ফাহমিদা ফাইজা ও তাহমিনা ফ্লোরা।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন