বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চে আজ বৃহস্পতিবার এই তথ্য তুলে ধরেন দুদকের আইনজীবী।

এর আগে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মকবুল হোসেনকে ১৬ অক্টোবর জনস্বার্থে বাধ্যতামূলক অবসরে পাঠায় সরকার। ‘অর্থ কেলেঙ্কারিতে চাকরি হারালেন সচিব মকবুল’ এমন শিরোনামে ১৭ অক্টোবর একটি জাতীয় দৈনিকে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়, যা ১৮ অক্টোবর আদালতের নজরে আনা হয়। সেদিন আদালত মকবুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ বিষয়ে (আর্থিক অনিয়ম) দুদক অবগত কি না, কোনো পদক্ষেপ আছে কি না, তা দুদকের আইনজীবীকে ২৭ অক্টোবর জানাতে বলেন।

এর ধারাবাহিকতায় আজ দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান আদালতে ওই তথ্য তুলে ধরেন। এ সময় রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন। শুনানি নিয়ে আদালত আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি পরবর্তী শুনানির দিন রেখেছেন।