default-image

ফেসবুকে ধর্ম নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগে সাময়িক বহিষ্কার হওয়া জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই ছাত্রীর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। ছাত্রীটি গত ২৫ অক্টোবর থেকে নিখোঁজ রয়েছেন।

আজ বৃহস্পতিবার ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আসসামছ জগলুল হোসেনের আদালতে আবু মুসা রিফাত নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী মামলাটি করেন।

আদালত অভিযোগের বিষয়ে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইমের (সিটিটিসি) সাইবার সিকিউরিটি অ্যান্ড ক্রাইম বিভাগকে তদন্ত করে আগামী ৮ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে নির্দেশ দেন। প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ওই ট্রাইব্যুনালের বেঞ্চ সহকারী শামীম আল মামুন।

বিজ্ঞাপন

নিখোঁজ ছাত্রীর পরিবারের সদস্যরা গত ২৯ অক্টোবর জানিয়েছিল, ২৫ অক্টোবর সকালে পল্লবী থানায় যাওয়ার উদ্দেশে বের হন ছাত্রী। কিন্তু থানা থেকে জানানো হয়, সে থানায় পৌঁছেনি । তাঁর সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোনও বন্ধ পাওয়া যায়। প্রথমদিকে পরিবারের সদস্যরা ভেবেছিলেন, বন্ধু বা আত্মীয়ের বাসায় যেতে পারেন। এরপরও ফিরে না আসায় ২৭ অক্টোবর হারিয়ে যাওয়া বিষয়ে একটি মিসিং ডায়েরি করে পরিবার। পুলিশ তাঁদের জানিয়েছে, তারা সব থানায় এ বিষয়ে জানিয়েছে। এখনো কোনো সংবাদ পাওয়া যায়নি।

এদিকে সেই ছাত্রীকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় সিআইডির ছাদ থেকে উদ্ধার—এমন গুজব ছড়ানোয় ২ নভেম্বর একজনকে গ্রেপ্তার করেছে সিআইডি। তাঁর নাম নিরঞ্জন বড়াল। তাঁর বিরুদ্ধ ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে।

মন্তব্য পড়ুন 0