শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নূর মোহাম্মদ বলেন, ওই নারী তাঁর দুই সন্তান ও স্বামীকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জে বসবাস করতেন। কয়েক বছর আগে স্থানীয় এক ব্যক্তির কাছ থেকে তাঁরা জমি কেনেন। পরে সেখানে তাঁরা ঘর তুলে বসবাস করছিলেন। তবে জমির দাম বেড়ে যাওয়ায় ওই লোক তাঁদের উচ্ছেদের চেষ্টা চালিয়ে আসছিলেন। তাঁর স্বামী নিরুদ্দেশ হয়ে যান।

ওসি নূর মোহাম্মদ আরও বলেন, পরে ওই নারীকে উচ্ছেদের চেষ্টা চালানো হয়। তিনি আজ দুই সন্তানকে নিয়ে প্রেসক্লাবের সামনে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টা চালানোর সময় স্থানীয় লোকজন বাধা দেন। তাঁকে পরে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তিনজনই ঘুমের ওষুধ খেয়েছিলেন বলে জানা গেছে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক সাদিকুল হক প্রথম আলোকে বলেন, ওই নারী ও দুই সন্তানকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে মেডিসিন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে।