বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

অন্যান্য নির্বাচনের চেয়ে টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনের উপনির্বাচনের পরিবেশ ভালো রয়েছে উল্লেখ করে নির্বাচন কমিশনার শাহাদাত হোসেন চৌধুরী বলেন, এখনো কোনো সহিংসতার খবর পাওয়া যায়নি। প্রত্যেক প্রার্থীর যার যার মতো প্রচার–প্রচারণা করছেন। কারও কোনো অভিযোগ নেই।

টাঙ্গাইল-৭ (মির্জাপুর) আসনের সাংসদ একাব্বর হোসেন গত ১৬ নভেম্বর মৃত্যুবরণ করায় আসনটি শূন্য হয়। ১৬ জানুয়ারি উপনির্বাচনে পাঁচজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

শাহাদত হোসেন চৌধুরী বলেন, ভোটকেন্দ্রের বুথে ঢুকে যাতে একজনের ভোট আরেকজন দিতে না পারেন, এ বিষয়ে প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের শক্তভাবে নির্দেশনা দিতে হবে। কোনো কেন্দ্রে প্রিসাইডিং কর্মকর্তার নিয়ন্ত্রণ না থাকলে ওই কেন্দ্রের ভোট বন্ধ করে দিতে হবে। এটি না করা হলে কমিশন তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পিছপা হবে না।

অনেকগুলো কেন্দ্রে অনিয়ম হলে পুরো নির্বাচন বন্ধ করতে রিটার্নিং কর্মকর্তাকে নির্দেশনা দেন শাহাদত হোসেন চৌধুরী। তিনি আরও বলেন, নির্বাচনের আগে প্রার্থীদের এজেন্টদের হয়রানি করা হয়। এ ধরনের কর্মকাণ্ড করে যাতে কেউ নির্বাচনী আমেজ নষ্ট না করেন, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। ভোটাররা যাতে অনুভব করতে পারেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ভোট গ্রহণের পর যাতে প্রত্যেক ভোটার নিরাপদে বাড়িতে ফিরতে পারেন, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। শুধু ভোটের দিন নয়, ভোটের পরেও যাতে কোনো সহিংসতা না হয়, সেদিকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের তিনি খেয়াল রাখতে বলেন।

জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে জেলা প্রশাসক মো. আতাউল গনির সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার, টাঙ্গাইল-৭ আসনের উপনির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ময়মনসিংহের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. সাহিদুল নবী চৌধুরী, সহকারী রিটার্নিং অফিসার এইচ এম কামরুল হাসান প্রমুখ।

সাংসদ একাব্বর হোসেন গত ১৬ নভেম্বর মৃত্যুবরণ করায় আসনটি শূন্য হয়। ১৬ জানুয়ারি উপনির্বাচনে পাঁচজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তাঁরা হলেন আওয়ামী লীগের খান আহমেদ শুভ, জাতীয় পার্টির মো. জহিরুল ইসলাম, ওয়ার্কার্স পার্টির গোলাম নওজব চৌধুরী, বাংলাদেশ কংগ্রেসের রূপা রায় চৌধুরী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. নুরুল ইসলাম।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন