শহরের সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ মাঠে এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। দুপুর ১২টার দিকে ভার্চ্যুয়ালি এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিগত কমিটির সভাপতি সুবল চন্দ্র সাহা। সঞ্চালনা করেন বিগত কমিটির সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মাসুদ হোসেন। নতুন সভাপতি শামীম হক সদ্য বিলুপ্ত জেলা আওয়ামী লীগ কমিটির সহসভাপতি ছিলেন। আর সাধারণ সম্পাদক ইশতিয়াক আরিফ ছিলেন ওই কমিটির তথ্য ও গবেষণাবিষয়ক সম্পাদক।

সম্মেলনে সভাপতি পদে ১০ ও সাধারণ সম্পাদক পদে ২১ জন প্রার্থী ছিলেন। সম্মেলনের দ্বিতীয় পর্বে সভাপতি পদপ্রত্যাশী ১০ জনকে মঞ্চে ডেকে নেওয়া হয়। তাঁদের ১০ মিনিট সময় দেওয়া হয় নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে একক নামের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য। একইভাবে সাধারণ সম্পাদক পদপ্রত্যাশী ২১ জনকে ডেকে নেওয়া হয়। তাঁদেরও নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে সমঝোতার মাধ্যমে একক নাম দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়।

১০ মিনিট পর সম্মেলনের প্রধান অতিথি কাজী জাফরউল্যাহ মঞ্চে এসে জানান, সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদপ্রত্যাশীরা আলোচনা করে একক সিদ্ধান্তে আসতে পারেননি। এ সময়ে দলীয় প্রধান জননেত্রী শেখ হাসিনা ও দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে তাঁর কথা হয়েছে। তাঁদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, জেলা আওয়ামী লীগের আগামী কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে যথাক্রমে শামীম হক ও ইশতিয়াক আরিফকে মনোনীত করা হয়েছে।

এর আগে ২০১৬ সালের ২২ মার্চ জেলা আওয়ামী লীগের সর্বশেষ ত্রিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছিল।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন