স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ সামসুল হক স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, নরসিংদীর বেলাব উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সমসের জামান ভূঁইয়াকে একটি অভিযোগের ভিত্তিতে গত বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি উপজেলা চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণ করে পদটি শূন্য ঘোষণা করে স্থানীয় সরকার বিভাগ। তারপর থেকে ভারপ্রাপ্ত উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন ভাইস চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান ভূঁইয়া জাহাঙ্গীর। মোহাম্মদ সমসের জামানের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিলেন তাঁর পরিষদেরই ভাইস চেয়ারম্যান।

বেলাব উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে মোহাম্মদ সমসের জামান ভূঁইয়ার অপসারণসংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনটি বাতিল করে তাঁকে স্বপদে পুনর্বহালের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, ন্যায়বিচার চেয়ে মোহাম্মদ সমসের জামান ভূঁইয়া হাইকোর্টে একটি রিট পিটিশন দায়ের করেন। ওই আপিলের পরিপ্রেক্ষিতে ২৪ ফেব্রুয়ারি আদালত আপিলের পক্ষে রায় দেন। পরে ভারপ্রাপ্ত উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও অভিযোগ দায়েরকারী মনিরুজ্জামান ভূঁইয়া আবারও রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করেন। সেই আপিলটি খারিজ করে দেন আদালত। এরই পরিপ্রেক্ষিতে বেলাব উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে মোহাম্মদ সমসের জামান ভূঁইয়ার অপসারণসংক্রান্ত প্রজ্ঞাপনটি বাতিল করে তাঁকে স্বপদে পুনর্বহালের নির্দেশ দেওয়া হলো।

মোহাম্মদ সমসের জামান ভূঁইয়া প্রথম আলোকে বলেন, ‘উপজেলার বাসিন্দারা ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে এলাকার জন্য কাজ করার সুযোগ দিয়েছিলেন আমাকে। আমার পরিষদের সদস্যরাই ষড়যন্ত্র করে আমাকে উপজেলা চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারণ করার ব্যবস্থা করেছিলেন। পুনরায় নিজের চেয়ারে বসে এলাকার জন্য কাজ করতে পারব, এই ভেবে আমি আনন্দিত।’

এ বিষয়ে বেলাব উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আয়শা জান্নাত তাহেরা বলেন, ‘আমি সংশ্লিষ্ট দপ্তর থেকে এ–সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন হাতে পেয়েছি। উপজেলা চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালনে মোহাম্মদ সমসের জামানের আর কোনো বাধা নেই। তিনি যেকোনো সময় তাঁর চেয়ারে বসতে পারেন।’