মাদারীপুরের সঙ্গে ফরিদপুরের বাস চলাচল বন্ধ থাকলেও রাজধানী ঢাকাসহ অন্যান্য জেলার সঙ্গে মাদারীপুরের বাস চলাচল স্বাভাবিক আছে। জেলা বাস ও মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি মো. মাহবুর হাওলাদার প্রথম আলোকে বলেন, ‘মহাসড়কে তিন চাকার যান চলার প্রতিবাদে মাদারীপুর থেকে ফরিদপুর রুটে সকাল থেকে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। এ রুটে আমাদের জেলা থেকে অন্তত ১০টি দূরপাল্লার বাস চলাচল করত। এগুলো আপাতত বন্ধ থাকবে।’

মাদারীপুর থেকে ফরিদপুরগামী বাস চলাচল বন্ধ থাকায় এ পথের যাত্রীরা দুর্ভোগে পড়েছেন। অনেককেই ছোট ছোট যানবাহনে করে গন্তব্যে পৌঁছাতে দেখা যায়। ফরিদপুরগামী যাত্রী সাইফুল ইসলাম প্রথম আলোকে বলেন, ‘ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আমার বাবা অসুস্থ হয়ে ভর্তি আছেন। তার কাছে যাওয়ার জন্য সকালে বাসস্ট্যান্ডে আসি। কিন্তু এই রুটের বাসগুলো না চলায় আমাকে মোটরসাইকেল ভাড়া নিয়ে যেতে হচ্ছে।’

বিএনপির নেতা-কর্মীদের দাবি, ফরিদপুরে বিএনপির গণসমাবেশে মাদারীপুরের নেতা-কর্মীদের ঠেকাতে এই মহাসড়কের বাস চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। এটি সরকারের পূর্বপরিকল্পিত বলেও দাবি করেন তাঁরা। মাদারীপুর জেলা বিএনপির সদস্যসচিব জাহান্দার আলী বলেন, ‘যতই ধর্মঘট ডাকা হোক না কেন, আমরা সমাবেশেই যাবই। মহাসড়কে বাস ট্রাক বন্ধ করেও আমাদের পদযাত্রা থামানো যাবে না। আমাদের নেতা-কর্মীরা বেশির ভাগই সমাবেশস্থলে চলে গেছেন।’