রুশনী আক্তারের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তাঁর ছোট বোনের স্বামী রাশেদুল ইসলাম। তিনি প্রথম আলোকে বলেন, গত ১২ নভেম্বর রুশনীকে চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে আনা হয়। তাঁর হৃদরোগের সমস্যা ছিল। বাচ্চা প্রসবের তারিখ নির্ধারিত ছিল বৃহস্পতিবার।

রাশেদুল বলেন, হৃদরোগের জটিলতার কারণে চিকিৎসকেরা গত সোমবার অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে রুশনীকে সন্তান প্রসব করায়। এর পর থেকে তাঁকে হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রাখা হয়। সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, রুশনী আক্তারের বাবার বাড়ি চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার খিরাম ইউনিয়নে। তিনি ২০১৩ সালে খিরাম উচ্চবিদ্যালয়ে থেকে মাধ্যমিক পাস করেন। ওই বছরের ২৯ জুলাই একই উপজেলার নাজিরহাট পৌরসভার হেলাল উদ্দিনের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তিনি।

২০১৫ সালে নাজিরহাট কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাস করেন রুশনী আক্তার। সে বছর আয়েশা আক্তার নামে তাঁর প্রথম সন্তানের জন্ম হয়।