গত ২০ অক্টোবর ভারতের কলকাতা থেকে ‘ইস্ট হিমালয়া ক্ল্যাসিক্যাল কার র‍্যালি’ শীর্ষক এই যাত্রা শুরু হয়। বেলজিয়াম, ফ্রান্স, ফিনল্যান্ড, যুক্তরাজ্য,নেদারল্যান্ডস, পর্তুগাল ও দক্ষিণ আফ্রিকার ৩৪ জন পর্যটক ও ৯ জন সহকারী এই র‍্যালিতে অংশ নেন। তাঁরা ভুটান ভ্রমণ শেষে ভারতের আসাম হয়ে ৬ নভেম্বর সিলেটের তামাবিল সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেন।

১২ নভেম্বর কলকাতায় গিয়ে এই যাত্রা শেষ হওয়ার কথা।

র‍্যালির বাংলাদেশ অংশের ব্যবস্থাপনা করছে দ্য জার্নি ওয়ালেট নামের একটি প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মতিউর রহমান বলেন, বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো এ ধরনের আন্তর্জাতিক র‍্যালি প্রবেশ করেছে। কার র‍্যালিতে অংশ নেওয়া বিদেশি নাগরিকেরা বাংলাদেশের আতিথেয়তায় খুব খুশি। তাঁরা বাংলাদেশের মানুষের জীবনযাত্রা ও সংস্কৃতিকে পছন্দ করেছেন।

র‍্যালিতে অংশ নেওয়া বিদেশি নাগরিকেরা জানান, কেবল ভ্রমণের উদ্দেশ্যে র‍্যালির আয়োজন করা হলেও তাঁরা ভারত, ভুটান ও বাংলাদেশের প্রকৃতি এবং মানুষের জীবন-আচার দেখে অভিভূত ও মুগ্ধ হয়েছেন। এই র‍্যালিতে আনন্দ উপভোগের সঙ্গে সঙ্গে অভিজ্ঞতাও অর্জন করেছেন তাঁরা।

কাল শুক্রবার সকালে র‍্যালিটি বেনাপোল চেকপোস্ট হয়ে ভারতে প্রবেশ করবে। ২৪ দিনের তিন দেশ ভ্রমণে ৩ হাজার ২৪৪ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে ১২ নভেম্বর কলকাতায় গিয়ে এই যাত্রা শেষ হওয়ার কথা।