বেতাগী পৌরসভার বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ব্রাজিলের বিশাল পতাকাটি দেখতে ভিড় করেন আশপাশের এলাকার শত শত মানুষ। পতাকাটি দেখতে আসা ওই এলাকার আবুল বাশার বলেন, কয়েক দিন আগে আর্জেন্টিনার সমর্থকেরা ২৫০ হাত লম্বা পতাকা টানিয়ে হইচই ফেলে দেন। এরপর বাসস্ট্যান্ড এলাকার রফিকুল ইসলাম, নজমুল, সাগর, মিজান গাজী, রাকিব গাজীসহ ব্রাজিল ভক্ত-সমর্থকেরা ৫০০ হাত লম্বা পতাকাটি বানিয়েছেন।

রিয়াজুল কবির নামের আরেকজন বলেন, ‘শুনেছি, আর্জেন্টিনার সমর্থকেরা এটিকে টেক্কা দিতে ভিন্ন কিছু করার চেষ্টা করছেন।’

ব্রাজিলের পতাকা তৈরির উদ্যোক্তাদের একজন শরিফুল ইসলাম ওরফে সাগর বলেন, ‘আমাদের এলাকায় আর্জেন্টিনার সমর্থকেরা ২৫০ হাত লম্বা পতাকা টাঙিয়েছিল। সেটাকে টেক্কা দিয়ে আমরা ব্রাজিলের সমর্থকেরা ৫০০ হাত লম্বা পতাকা প্রদর্শন করলাম। এতে মনে শান্তি অনুভব করছি। বিশ্ব ফুটবলে পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। খেলার মাঠেও ব্রাজিল চমক দেখায়। ভালো লাগা থেকে আমাদের এই ছোট্ট আয়োজন।’

মুন্না নামে আর্জেন্টিনার এক সমর্থক বলেন, ‘আমাদের দেখেই তারা বড় পতাকা বানিয়েছে। এবার আমরাও ভিন্ন কিছু করতে চাই। তবে আমাদের এই প্রতিযোগিতা শুধু মনের আনন্দের জন্য। আমরা সবাই মিলেমিশে এবারের বিশ্বকাপ উপভোগ করব।’

বেতাগী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. সুহৃদ সালেহীন বলেন, ‘দুই দলের সমর্থকেরা উপজেলা পরিষদ এলাকায় পতাকা লাগিয়েছেন। তবে পতাকা ঘিরে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হলে দুটিই নামিয়ে ফেলব। বিশ্বকাপ ঘিরে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির কোনো সুযোগ নেই।’