সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সুলেমান মার্ডী, চিত্তরঞ্জন পাহান, শ্রীমান সরেণ, বাদল তিগ্যা, সায়েম সবুজ প্রমুখ। পরে প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে প্রায় ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন করেন তাঁরা। এ সময় মানববন্ধনে বিরামপুর-হাকিমপুর-নবাবগঞ্জ-ঘোড়াঘাট উপজেলার তিন শতাধিক সাঁওতালসহ সাধারণ বাঙালিরাও উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনে নিজেকে প্রার্থী ঘোষণা করায় রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা ছয়জন সাঁওতালকে দিয়ে শিবলী সাদিকের বিরুদ্ধে ভিত্তিহীন সংবাদ সম্মেলন করিয়েছে। ওই ছয়জন জমি দখলের অভিযোগ করলেও জমির মালিকানার পক্ষে কোনো কিছুরই দালিলিক তথ্য উপস্থাপন করেননি। মিথ্যা সংবাদ সম্মেলনে স্বপ্নপুরীর নামে ৭৭ দশমিক ৬১ একর জমি জবরদখলের অভিযোগ করা হলেও প্রকৃতপক্ষে স্বপ্নপুরীর মোট জমির পরিমাণ ৫৬ একর।

লিখিত বক্তব্যে আরও বলা হয়, সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে শিবলী সাদিক ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা আসনটিকে আওয়ামী লীগের ঘাঁটিতে রূপান্তরিত করেছেন। এলাকার রাস্তাঘাট, বিদ্যুৎ, স্যানিটেশন, স্বাস্থ্যব্যবস্থার উন্নয়ন করেছেন। পারিবারিক অর্থায়নে প্রায় ৫০ কোটি টাকা ব্যয়ে মসজিদ নির্মাণ ও নিজস্ব জায়গায় হাটবাজার, স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসা, পুলিশ ফাঁড়ি, ইউনিয়ন পরিষদ, ফরেস্ট অফিস ও হাসপাতাল নির্মাণ করেছেন। সাঁওতাল জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে কাজ করাসহ রাজনীতিতে প্রবেশাধিকারে সহায়তা করেছেন। ফলে এবার সাঁওতালদের মধ্যে চিত্তরঞ্জন পাহান নামের এক ব্যক্তি ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে সংসদ সদস্যের সমর্থক সাঁওতালরা বলেন, শিবলী সাদিকের হাত ধরে ওই এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকাণ্ড হওয়ায় তাঁর সাংগঠনিক দক্ষতা ও জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে এলাকায় বিএনপি-জামায়াতকে প্রতিষ্ঠিত করতে একটি মহল ষড়যন্ত্রে মেতেছে। অথচ ওই মহলটিই হিন্দু আদিবাসীদের জমি দখল, কয়লা পাচারসহ নিয়োগ–বাণিজ্যে জড়িত। স্বপ্নপুরীর স্বত্বাধিকারী দেলোয়ার হোসেনকে ভূমিদস্যু বলাসহ তাঁর বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ ভিত্তিহীন, মিথ্যা ও উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে দাবি করেন তাঁরা।

গত ৩০ জুলাই শনিবার দিনাজপুর-৬ আসনের সংসদ সদস্য শিবলী সাদিকের চাচা স্বপ্নপুরীর স্বত্বাধিকারী সাবেক সংসদ সদস্য দেলোয়ার হোসেনসহ তাঁর কয়েকজন অনুগত ব্যক্তির বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছিলেন নবাবগঞ্জ উপজেলার ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠী সাঁওতাল সুজন টুডু, জেঠা হেমব্রমের পুত্র গণেশ হেমব্রম, উকিল হেমব্রম, রুবেন মার্ডি, লুইস হাসদা, খুকুমনি হেমব্রম প্রমুখ।

জেলা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন