বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এ ব্যাপারে আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ বজলুর রশীদ প্রথম আলোকে বলেন, আকাশ মেঘমুক্ত থাকায় আর অন্য কোনো বাতাসের চাপ না থাকায় উত্তরাঞ্চল দিয়ে শীতের শীতল বাতাস আসছে। যে কারণে আগামী কয়েক দিন শীত বাড়তে পারে। তবে আন্দামান সাগরে একটি লঘুচাপ তৈরির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। সেটি মাসের শেষের দিকে নিম্নচাপে পরিণত হলে শীতের দাপট কিছুটা কমে আসবে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর অবশ্য বলছে, মাসের শেষের দিকে, অর্থাৎ ২৯ থেকে ৩০ নভেম্বরের মধ্যে বঙ্গোপসাগরে একটি লঘুচাপ তৈরি হতে পারে। সেটি নিম্নচাপ থেকে ঘূর্ণিঝড়েও রূপ নিতে পারে। এরই মধ্যে আন্দামান সাগরে একটি লঘুচাপ তৈরির মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এখন পর্যন্ত সেখানকার যা লক্ষণ বোঝা যাচ্ছে, তাতে ওই লঘুচাপটি দ্রুত শক্তি অর্জন করতে পারে।

আর এটি যত শক্তি অর্জন করবে, বঙ্গোপসাগর থেকে মেঘ আর দমকা হাওয়ার দাপট বাড়বে। এর ফলে দেশের উত্তরাঞ্চল দিয়ে শীতের হিমেল হাওয়া আসার গতি থমকে যেতে পারে। ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত তা চলতে পারে। এতে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত তাপমাত্রা বাড়তে পারে। শীত কমে আসতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আজ দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে। রাতের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

পরিবেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন