আবহাওয়া অধিদপ্তরের আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পশ্চিম-মধ্য বঙ্গোপসাগর ও এর কাছাকাছি এলাকায় থাকা ঘূর্ণিঝড় আজ আরও উত্তর দিকে এগোবে। এর একটি বড় অংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত ছড়িয়ে আছে। ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অধিকাংশ জায়গা; ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর বিভাগের দু-একটি জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝোড়ো হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী বর্ষণ হতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. হাফিজুর রহমান আজ সকালে প্রথম আলোকে জানান, ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদ গতকাল রাতেই গভীর নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, দুপুরের আগেই এটি আরও দুর্বল হয়ে নিম্নচাপে পরিণত হবে। এখন এটি ভারতের ওডিশা ও তামিলনাড়ুর উপকূলে আছে। দুপুরের পর পশ্চিমবঙ্গের উপকূলের দিকে যাবে, তখন এটি একেবারে দুর্বল হবে।

হাফিজুর রহমান জানান, কাল সোমবারও বৃষ্টি হবে। বৃষ্টি থাকবে রাজধানীতেও।

নিম্নচাপের গতি প্রকৃতির ওপর নির্ভর করছে পরশুও বৃষ্টি হবে কি না। তবে এখন পর্যন্ত ধারণা করা যায়, রোদের মুখ দেখা যেতে পারে মঙ্গলবার। এই আবহাওয়াবিদ আরও জানান, এ মাসেই আরেকটি নিম্নচাপ আসতে পারে, তবে এর সময় কবে হবে, তা বলা যাচ্ছে না।

আজ দিনের তাপমাত্রায় তেমন কোনো পরিবর্তন হবে না। তবে রাতে তাপমাত্রা দু-এক ডিগ্রি কমতে পারে।