ঘূর্ণিঝড়ের আশঙ্কায় বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত নৌযানগুলোকে উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকেও নিরাপদ স্থানে অবস্থান করতে বলা হয়েছে। চট্টগ্রাম, মোংলা, পায়রা ও কক্সবাজার সমুদ্রবন্দরকে ২ নম্বর দূরবর্তী হুঁশিয়ারি সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ এ কে এম নাজমুল হক প্রথম আলোকে বলেন, ঘূর্ণিঝড়টি বাংলাদেশের দিকে আসার আশঙ্কা কম। এটি বাংলাদেশ উপকূল থেকে দেড় হাজারের বেশি কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে। ভারতের দক্ষিণ উপকূলের দিকে তা আজ রাতের মধ্যে আঘাত করতে পারে।

এদিকে ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে এরই মধ্যে ভারতীয় উপকূলের দিকে বঙ্গোপসাগর উত্তাল রয়েছে। তবে বাংলাদেশের দিকে সাগর স্বাভাবিক রয়েছে। ঘূর্ণিঝড়টির কেন্দ্রে বাতাসের গতিবেগ রয়েছে ঘণ্টায় ৮৯ কিলোমিটার, যা ঝোড়ো হাওয়ার বেগে ১১৭ কিলোমিটার পর্যন্ত বাড়ছে।

আজ দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ১২ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রাজধানীর সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বৃহস্পতিবারের তুলনায় ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমে ১৭ দশমিক ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছিল। রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ, সিলেট ও খুলনার বেশির ভাগ জেলার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৩ থেকে ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।