চলতি অর্থবছরে আইসিটি বিভাগ ইতিমধ্যে যে ৫টি অনুষ্ঠান করেছে, তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি ব্যয় (৪০ কোটি টাকা) ধরা হয়েছিল ইন্টারন্যাশনাল কলেজিয়েট প্রোগ্রামিং কনটেস্টের (আইসিপিসি) জন্য। ৬ থেকে ১১ নভেম্বর এটি অনুষ্ঠিত হয়। তবে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী প্রথম আলোকে জানান, তাঁরা আইসিপিসির জন্য বরাদ্দের ১৫ শতাংশ ব্যয় করেছেন।

আইসিটি বিভাগের অন্যতম আয়োজন ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড। প্রায় প্রতিবছরই এই সম্মেলন ও মেলা হয়। এবারও আগামী ৮ থেকে ১২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠানটি হওয়ার কথা ছিল। এর জন্য বরাদ্দ ছিল ১৬ কোটি টাকা; যদিও অনুষ্ঠানটি আয়োজনের জন্য আহ্বান করা দরপত্র বাতিল করা হয়েছে।

এ-সংক্রান্ত একটি নির্দেশনায় দেখা যায়, ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড আয়োজনের জন্য খাবার, পরিবহন, অতিথি ব্যবস্থাপনা, ছাপা ও প্রকাশনা, মনিহারিসামগ্রী ক্রয়, অনুষ্ঠানস্থল ব্যবস্থাপনা এবং বিজ্ঞাপন, প্রচারসহ বিভিন্ন খাতে মোট চারটি দরপত্র আহ্বান করা হয়েছিল। গতকাল মঙ্গলবার আয়োজক সংস্থা বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের (বিসিসি) সচিব মোহাম্মদ রাশেদুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক নির্দেশনায় দরপত্রগুলো বাতিল করা হয়।

ডিজিটাল ওয়ার্ল্ড আয়োজনে প্রচারণামূলক কার্যক্রম ও অনুষ্ঠানের জন্য সিইএমএস লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠান কাজ পেয়েছিল। সেটাও বাতিলের জন্য গতকাল নোটিশ দিয়েছে বিসিসি।

উল্লেখ্য, গতকাল প্রথম আলো অনলাইনে ‘চলতি অর্থবছরে অনুষ্ঠানের জন্য ৭৫ কোটি টাকা চেয়েছে আইসিটি বিভাগ’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। এতে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা কিছু অনুষ্ঠান আয়োজন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন।