প্রথম আলোকে এই তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের অপরাধ ও তথ্য বিভাগের উপপরিদর্শক (এসআই) সাইফুর রহমান।

আদালত সংশ্লিষ্টসূত্রগুলো বলছে, লালবাগ থানায় শ্লীলতাহানির অভিযোগে করা মামলায় বাস চালক মাহাবুবুর রহমানকে পাঁচ দিন রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করার আবেদন করে পুলিশ। উভয়পক্ষের শুনানি নিয়ে আদালত একদিন মঞ্জুর করেন।

গতকাল বুধবার ঢাকার আশুলিয়া এলাকা থেকে ওই চালককে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ বলছে, গত রোববার রাত সাড়ে আটটার দিকে একজন ছাত্রী ধানমন্ডি থেকে আজিমপুরে তাঁর বাসায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে বিকাশ পরিবহনের একটি বাসে ওঠেন। বাসে উঠে হেডফোন লাগিয়ে গান শুনতে শুনতে একপর্যায়ে ওই ছাত্রী তন্দ্রাচ্ছন্ন হয়ে পড়েন। সব যাত্রী নেমে যাওয়ায় পর বাসটিতে ওই ছাত্রী একাই ছিলেন। তখন বাসের চালকের সহকারী ওই ছাত্রীর সঙ্গে অশালীন আচরণ করলে তিনি চিৎকার শুরু করেন। ওই ছাত্রী বাস থামাতে বলার পরও চালক বাস চালিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন। একপর্যায়ে আজিমপুর গার্লস স্কুলের কাছে চালক বাসটির গতি কমালে ওই ছাত্রী লাফ দিয়ে বাস থেকে নেমে যান।

ছাত্রী ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে শেয়ার করে একটি পোস্ট দেন। এরপর লালবাগ থানার পুলিশ ছাত্রীর কাছ থেকে তথ্য সংগ্রহ করে। তাৎক্ষণিক সিসি ফুটেজ পর্যালোচনা এবং আধুনিক তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তা নিয়ে বিকাশ পরিবহনের বাসটি শনাক্ত করা হয়। চালকের সহকারীকে গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন