আদালতে রিটের পক্ষে আইনজীবী কাজী মোস্তাফিজুর রহমান আহাদ শুনানি করেন। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অরবিন্দ কুমার রায়।

গতকাল রোববার শুনানি শেষে আদালত আজ আদেশের জন্য দিন রাখেন। এর ধারাবাহিকতায় আদেশ দেওয়া হয়।

রিট আবেদনকারীর আইনজীবী কাজী মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘গত ১৮ আগস্ট চট্টগ্রামে জন্মাষ্টমীর এক অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, “আমি ভারতে গিয়ে বলেছি, শেখ হাসিনাকে টিকিয়ে রাখতে হবে।” এ কথা বলার মধ্য দিয়ে তিনি শপথ ভঙ্গ ও নির্বাচনব্যবস্থাকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছেন। যে কারণে তাঁর পদে থাকার বৈধতা নিয়ে রিটটি করা হয়। আদালত রিটটি সরাসরি খারিজ করে দিয়েছেন। আবেদনকারীর সঙ্গে আলোচনা করে আপিল করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’