প্রতিযোগিতার শেষে হোয়াটসঅ্যাপে আরাফাত প্রথম আলোকে বললেন, ‘আয়রনম্যানে আজই আমার সেরা টাইমিং হয়েছে। এটা আমার কাছে অপ্রত্যাশিত ছিল। ভালো টাইমিং করে বাংলাদেশকে এখানে তুলে ধরতে পারলাম, এটাই বড় কথা।’

default-image

আয়রনম্যান ৭০.৩ দেসারু কোস্ট নামের এ প্রতিযোগিতা শুরু হয় স্থানীয় সময় সকাল ৭টা ৫ মিনিটে (বাংলাদেশ সময় ভোর ৫টা ৫ মিনিট)। প্রথমেই ছিল সাঁতার। ১ দশমিক ৯ কিলোমিটার সাঁতার সম্পন্ন করতে আরাফাতের সময় লাগে ৩৮ মিনিট ৩ সেকেন্ড। এরপর ৯০ কিলোমিটার সাইক্লিং আরাফাত শেষ করেন ২ ঘণ্টা ৩৩ মিনিট ৩৪ সেকেন্ডে। এক দিনে পৃথিবীর কঠিনতম এই ট্রায়াথলনের শেষ বিষয় দৌড়। ২১ দশমিক ১৪ কিলোমিটার দূরত্বের দৌড় সম্পন্ন করতে আরাফাত সময় নিয়েছেন ১ ঘণ্টা ৩৭ মিনিট ৫০ সেকেন্ড।

আজকের আয়রনম্যান আয়োজনে ৪ ঘণ্টা ১৮ মিনিট ২৩ সেকেন্ড সময় নিয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেছেন জাপানের কে মিজুশিমা। দ্বিতীয় ও তৃতীয় স্থানে রয়েছেন যথাক্রমে যুক্তরাষ্ট্রের ব্রেনো মেলো (৪ ঘণ্টা ২৬ মিনিট ২৮ সেকেন্ড) ও অস্ট্রেলিয়ার এম ক্যাসিনিডেস (৪ ঘণ্টা ২৭ মিনিট ১৫ সেকেন্ড)। নিজের বয়সভিত্তিক গ্রুপে (৩০-৩৪ বছর) আরাফাতের অবস্থান চতুর্থ। এ আয়োজনে ১১২ জন নারী ট্রায়াথলেট অংশ নিয়েছেন।

আয়রনম্যানে আজই আমার সেরা টাইমিং হয়েছে। এটা আমার কাছে অপ্রত্যাশিত ছিল। ভালো টাইমিং করে বাংলাদেশকে এখানে তুলে ধরতে পারলাম, এটাই বড় কথা।
হোয়াটসঅ্যাপে আরাফাত

পেশাগত জীবনে বাংলাদেশ ব্যাংকের উপপরিচালক মোহাম্মদ সামছুজ্জামান আরাফাত ২০১৬ সাল থেকে আয়রনম্যান আয়োজনে অংশ নিচ্ছেন। চলতি বছরের ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ সম্পন্ন করার আগে গত বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর সেন্ট জর্জ শহরেই আয়রনম্যান ৭০.৩ ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়নশিপ সম্পন্ন করেন আরাফাত। এর আগে ২০১৭ সালে আয়রনম্যান মালয়েশিয়া, ২০১৯ সালে জার্মানিতে আয়রনম্যান ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়নশিপ, আয়রনম্যান মালয়েশিয়া এবং ২০২০ সালে থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠিত আয়রনম্যান ৭০.৩ চ্যালেঞ্জ সফলভাবে সম্পন্ন করেন।

মালয়েশিয়ার এই আয়রনম্যান ৭০.৩ প্রতিযোগিতায় আরাফাতের অংশগ্রহণে সহযোগী হিসেবে আছে প্রথম আলো। প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে ১৯ জুলাই মালয়েশিয়ায় যান আরাফাত। এবার ছেলে আহিয়াশ ও স্ত্রী সুমাইয়া ইয়াসমীনও তাঁর সঙ্গে রয়েছেন।

বাংলাদেশ থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন