দেশব্যাপী হরতাল-অবরোধে সহিংস ঘটনা, সন্ত্রাসী কার্যক্রমে ব্যাংক ব্যবস্থার মাধ্যমে কেউ যেন অর্থ জোগান দিতে না পারে, সে বিষয়ে ব্যাংকগুলোকে বিশেষভাবে সতর্কতা করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।
একই সঙ্গে সন্ত্রাসের কারণে ঝুঁকিপূর্ণ জেলাগুলোর সব গ্রাহকের গত ছয় মাসের লেনদেন পর্যালোচনা করে তা কেন্দ্রীয় ব্যাংকে পাঠাতে বলা হয়েছে। এসব নির্দেশনা প্রতিটি শাখার সব কর্মকর্তাকে আজ বুধবারের মধ্যে জানাতে হবে।
সূত্র জানায়, ব্যাংকগুলোর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ পরিপালন কর্মকর্তাদের (ক্যামেলকো) নিয়ে অনুষ্ঠিত এক জরুরি বৈঠকে গতকাল মঙ্গলবার বাংলাদেশ ব্যাংক এসব নির্দেশনা দিয়েছে।
কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এফআইইউয়ের দায়িত্বে থাকা ডেপুটি গভর্নর আবু হেনা মোহা. রাজী হাসান প্রথম আলোকে বলেন, দেশব্যাপী এসব সহিংস কার্যক্রমকে সন্ত্রাসী কার্যক্রম হিসেবে দেখা হচ্ছে। যে কারণে এসব কার্যক্রমে যাতে ব্যাংকের মাধ্যমে কোনো অর্থায়ন না হতে পারে, সে বিষয়ে ব্যাংকগুলোকে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।
সূত্র জানায় বৈঠকে বলা হয়, ব্যাংকগুলোকে সন্দেহজনক লেনদেন কঠোরভাবে তদারক ও নজরদারি করতে হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করবে ব্যাংকের প্রধান মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ কর্মকর্তা। আর এদের কার্যক্রম বিশেষভাবে তদারক করবে বাংলাদেশ ব্যাংক।
৫ ফেব্রুয়ারি অর্থ মন্ত্রণালয় পরিদর্শনে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ব্যাংক চ্যানেল ব্যবহার করে জঙ্গি ও নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডে যেন অর্থায়ন না হয়, সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। এ নির্দেশনা ধরে বৈঠকটি হয়েছে বলে জানা যায়।

বিজ্ঞাপন
বাণিজ্য থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন